Breaking News

মদের আসরে ভাইরাল গ্রাম প্রধানকে সরালো তৃনমূল

Post Views: website counter

 

বিধানসভা নির্বাচনের আগে মদের আসরে নৃত্যরত অবস্থায় সোস্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া নয়াপুটের গ্রাম প্রধান অসিত গিরিকে পদ থেকে সরিয়ে দিলো তৃনমূল।পূর্ব মেদিনীপুর জেলার কাঁথি ১ ব্লকের অন্তর্গত নয়াপুট।

অপসারিত গ্রাম প্রধান অসিত গিরি বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীর ঘনিষ্ঠ বলে দাবি তৃনমূলের।সেই সাথে তাঁর বিরুদ্ধেক্ষমতায় থাকা কালীন একের পর এক দুর্নীতিতে জড়ানোর অভিযোগ তুলেছে শাসক।এছাড়াও বিধানসভা নির্বাচনের সময়ে বিজেপির সাথে গোপিন আঁতাত করে দল বিরোধী কার্যকলাপ সহ একাধিক অভিযোগের ভিত্তিতে নয়াপুট পঞ্চায়েতের গ্রাম প্রধানের বিরুদ্ধে অনাস্থা আনে তৃনমূল নেতৃত্ব।

নয়াপুট গ্রাম পঞ্চায়েত দক্ষিন কাঁথি বিধানসভা ক্ষেত্রের মধ্যে পড়ে ।এই পঞ্চায়েতের বিজেপি নেতা শুভেন্দু ঘনিষ্ঠ প্রধান অসিত গিরিকে অনাস্থা এনে সরিয়ে দিলো তৃনমূল।গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে ১৭টি আসনের মধ্যে ১৪টি আসনে জয়ী হয় তৃনমূল।২টি আসনে বিজেপি ও ১টিতে বাম প্রার্থী জয়ী হয়েছিলো। কন্টাই কার্ড ব্যাঙ্কের কর্মী অসিত গিরিকে শুভেন্দু অধিকারীর নির্দেশে গ্রাম প্রধান নির্বাচিত করে তৃনমূলের জয়ী সদস্যরা।উল্লেখ নন্দীগ্রামের বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী প্রায় দুই দশক ধরে কন্টাই কার্ড ব্যাঙ্কের চেয়ারম্যানের দ্বায়িত্ব সামলাচ্ছেন।

কাঁথি ১ ব্লক তৃনমূল কংগ্রেসের সভাপতি রামগোবিন্দ দাস জানিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী তৃনমূলে থাকাকালীন অসিত গিরির বিরুদ্ধে একাধিক দুর্নীতির অভিযোগ জমা পড়েছিলো দলের কাছে।রামগোবিন্দ বাবুর অভিযোগ এই বিষয়ে দলের তৎকালীন নেতৃত্ব অর্থাৎ পূর্বতন জেলা সভাপতি কাঁথির সাংসদ শিশির অধিকারীর কাছে অভিযোগ জানিয়ে কোন লাভ হয়নি।অভিযোগ করেছেন দলীয় নেতৃত্বের পাশাপাশি এলাকার বাসিন্দারাও অভিযোগ করেছেন।কিন্ত শিশির বাবু-শুভেন্দু বাবুরা কর্ণপাত করেন নি ।তৃনমূলের ব্লক সভাপতির অভিযোগ অসিত গিরির দুর্নীতি ও তলতলে বিজেপির সাথে যোগাযোগ রেখে সাবোতাজ করায় দক্ষিন কাঁথি আসনে দলের প্রার্থী জ্যোতির্ময় কর লিড পাননি এই পঞ্চায়েত থেকে।এর পরেই অসিত গিরির বিরুদ্ধে দলীয় কর্মীদের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভ তৈরী হয় ।

জানা গেছে নিয়ম মেনে পঞ্চায়েতের ১৪ জন তৃনমূলের পঞ্চায়েত সদস্যদের মধ্যে ১২ জন অসিত গিরির বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনেন ।এদিন অনাস্থা সভায় এই ১২ জন পঞ্চায়েত সদস্য হাজির ছিলেন।দুই বিজেপি ও এক বাম সদস্যের পাশাপাশি অসিত গিরি ও আরো এক তৃনমূল সদস্য অনুপস্থিত ছিলেন।

অসিত গিরির দাবি তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ আনা হয়েছে।তৃনমূলের বর্তমান স্থানীয় নেতৃত্ব তাঁর প্রতি অবিচার করেছে।চক্রান্ত করে তাঁকে ক্ষমতা থেকে সরানো হল ।উল্লেখ্য বিধানসভা নির্বাচনের মাত্র কয়েক দিন আগে অসিত গিরির একটা ভিডিও সোস্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয় ।সেই ভিডিওতে অসিত গিরিকে মদের আসরে মদ্যপ অবস্থায় নৃত্য করতে দেখা গেছিলো।স্বাভাবিক কারনে এই ঘটনা তৃনমূলকে অস্বস্তিতে ফেলে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *