Breaking News

করোনা আক্রান্ত তৃনমূল নেতার মৃত্যুঃপাঁশকুড়ার বড়মা কোভিড হাসপাতালে তান্ডব

Post Views: website counter

 

পূর্ব মেদিনীপুর জেলার পাঁশকুড়ার বড়মা হাসপাতাল সকাল থেকে রনক্ষেত্রের চেহারা নিলো ! কোভিড আক্রান্ত এক ব্যক্তির মৃত্যুকে ঘিরে উত্তপ্ত হয়ে উঠে হাসপাতাল চত্বর। পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেও চাপা আতংক আছে হাসপাতালে চিকিৎস্যাধীন রোগীদের মধ্যে।

জানা গেছে শনিবার সকাল নাগাদ মৃত্যু হয় তমলুকের বাসিন্দা এক করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির। এই মৃত ব্যাক্তি তমলুক পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। হাসপাতাল সূত্রে আরো জানা গেছে মারন ভাইরাস করোনা আক্রান্ত মৃত ওই ব্যক্তি পুর্ব মেদিনীপুর জেলার আইএনটিটিইউসি সভাপতি দিব্যেন্দু রায়ের অনুরোধে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন।

অভিযোগ তৃণমূলের ওই নেতার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়তেই কিছুক্ষনের মধ্যে প্রায় শ’খানেক চড়াও হয় বড়মা হাসপাতালে। অভিযোগ হামলাকারীরা বড়মা হাসপাতালের চিকিৎসা একাধিক আসবাবপত্র ভাঙচুর করে তারা।

কোভিড আক্রান্ত জটিল রোগীরা হাসপাতালে ভর্তি থাকায় হাসপাতালের চিকিৎসক ভাস্কর রায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা চালান। অভিযোগ সেসময় চিকিৎসক ও বেশকিছু নার্সকে মারধর করে ওই উত্তেজিত জনতা। পরে পাঁশকুড়া থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে । ঘটনায় চিকিৎসক থেকে নার্স সবাই আতঙ্কিত ।এই হামলার ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে অবিলম্বে আইন অনুযায়ী ব্যাবস্থা গ্রহনের দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।

(জরুরি ঘোষণা: কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের জন্য কয়েকটি বিশেষ হেল্পলাইন চালু করেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এই হেল্পলাইন
নম্বরগুলিতে ফোন করলে অ্যাম্বুল্যান্স বা টেলিমেডিসিন সংক্রান্ত পরিষেবা নিয়ে সহায়তা মিলবে। পাশাপাশি থাকছে একটি সার্বিক
হেল্পলাইন নম্বরও।

• সার্বিক হেল্পলাইন নম্বর: ১৮০০ ৩১৩ ৪৪৪ ২২২

• টেলিমেডিসিন সংক্রান্ত হেল্পলাইন নম্বর: ০৩৩-২৩৫৭৬০০১
• কোভিড-১৯ আক্রান্তদের অ্যাম্বুল্যান্স পরিষেবা সংক্রান্ত হেল্পলাইন নম্বর: ০৩৩-৪০৯০২৯২)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *