Breaking News

সন্ত্রাস থেকে রক্ষা পেতে দলীয় কার্যালয়ে ঠাঁই বিজেপি কর্মীদের

Post Views: website counter

 

প্রদীপ কুমার সিংহ

বিধানসভা ভোটের ফলাফল বের হওয়ার পরই চারিদিকে রাজনৈতিক হিংসাত্মক ঘটনা ঘটছে। দক্ষিণ ২৪ পরগনা বিজেপির পূর্ব জেলার পার্টি অফিসে ২০০ বেশী বিজেপি কর্মীরা আশ্রয় নিয়েছে। এরা মূলত এসছে বারুইপুর থানার অন্তর্গত বেদবেরিয়া, ক্যানিং, বাসন্তী, গোসাবা ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিভিন্ন জায়গা থেকে এসেছে।

দক্ষিণ ২৪ পরগনা বিজেপি পূর্ব জেলার সভাপতি সুনিপ দাস বলেন, বিধানসভা নির্বাচনের ফল ঘোষণা করার পর এই তৃণমূলের দুষ্কৃতী বাহিনী দক্ষিণ ২৪ পরগনার প্রায় ১২০০ বেশী বাড়ি ভাঙচুর করেছে। যাদের বাড়ি ভেঙেছে তারা মূলত গরিব প্রান্তিক মানুষ, দিন আনে দিন খায়। বলেন বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল এর পরে যে হিংসাত্মক ঘটনা ঘটেছে তা আগে কোনদিন পশ্চিমবঙ্গের মানুষ দেখেনি। প্রশাসনের কাছে অভিযোগ জানালে প্রশাসন কোন ব্যবস্থা করেনি।

বিজেপি পার্টির পক্ষ থেকে বারুইপুর জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কাছে একটা ডেপুটেশন জমা দিয়েছে কয়েক দিন আগে । তাতে করে পুলিশ এখনো কোনো ব্যবস্থা করে উঠতে পারেনি বলে দাবি করেছেন বিজেপি নেতারা।

তাঁদের অভিযোগ তৃণমূলে দুষ্কৃতী বাহিনী এইসব বিজেপি কর্মী কে বাড়ি ভাঙচুর করে ঘরছাড়া করেছে। বারুইপুর জেলা বিজেপি পার্টি অফিসে পুরুষ, মহিলা, বাচ্চা সবাই এখানে আশ্রয় নিয়েছে।
বারুইপুর পূর্ব বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল কংগ্রেসের নব্য বিধায়ক বিভাস সরদার কে এই ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে এই সব কিছু করা হয়নি। বিজেপির পক্ষ থেকে মিথ্যা কথা বলছে। বারুইপুর বিজেপি পার্টির অফিসে যেসব বিজেপি কর্মীরা রয়েছে তারা সব সমাজবিরোধী। এই বিষয়ে বারুইপুর থানায় তিনি জানাবেন। থানার পুলিশ যাতে এই বিজেপির দুষ্কৃতীকে গ্রেফতার করে তার ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য অনুরোধ করবে।

তিনি আরো বলেন দক্ষিণ ২৪ পরগনা বিজেপি যেহেতু একটা আসন না পাওয়ার দরুন পুরনো বিজেপি কর্মী ও নতুন বিজেপি কর্মীর মধ্যে অন্তর্দ্বন্দ্ব হয়। তার ফলে ঘরবাড়ি ভাঙচুর হয়। দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিজেপির পূর্ব জেলার সভাপতি বলেন এই ব্যাপারে প্রশাসন কিছু না করলে তারা আগামী দিনে আন্দোলন করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *