Breaking News

স্ট্রংরুমের সিসি ক্যামেরা অকেজঃআদালতে যাওয়ার হুমকী প্রার্থীর

Post Views: website counter

 

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃনমূল সুপ্রীম মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিধানসভা নির্বাচনের প্রথম দফার ভোট গ্রহনের পর থেকেই দলীয় প্রার্থী ও কর্মীদের সতর্ক করেছিলেন।আশংকা প্রকাশ করে বলেছিলেন স্ট্রংরুমে থাকা ইভিএম ট্যাম্পারিং কিংবা বদল করতে পারে বিজেপি।এবার সেই আশংকা প্রকাশ করলো এক কংগ্রেস প্রার্থী।

আশংকা প্রকাশ করলেন কারন দুই ঘন্টা ধরে অকেজ হয়ে পড়ে ছিলো স্ট্রং রুমের সিসি ক্যামেরা।আর এই দুই ঘন্টায় যে ইভিএম ট্যাম্পারিং কিংবা বদল করা হয়নি তার প্রমান কি আছে সেই প্রশ্ন তুলেছেন পূর্ব মেদিনীপুর জেলার ময়নার সংযুক্ত মোর্চার কংগ্রেস প্রার্থী তথা এলাকার প্রাক্তন বিধায়ক মানিক ভৌমিক।

পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় ১৬টি বিধানসভা কেন্দ্র ।এর মধ্যে তমলুক মহকুমার অন্তর্গত চন্ডীপুর, নন্দকুমার, ময়না ও তমলুক বিধানসভা কেন্দ্রের ভোটের ফলাফল গননা হবে কোলাঘাট থার্মাল পাওয়ার প্রজেক্ট হাইস্কুলে।এখানে স্ট্রংরুমে চারটি বিধানসভা কেন্দ্রের ইভিএম গুলি রাখা আছে ।সেই স্ট্রং রুমের সিসি ক্যামেরা অচল ছিলো বলে জানা যাচ্ছে।এই বিষয়ে এই বিধানসভার রিটার্নিং অফিসার,রাজ্যের মুখ্য নির্বাচন আধিকারীক ও প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতিকে মেলে নিজের আশংকার কথা জানিয়েছেন ।

চিঠিতে মানিক ভৌমিক জানিয়েছেন গত ২৫ এপ্রিল সন্ধ্যা প্রায় সাড়ে পাঁচটা থেকে রাত্রি সাড়ে সাতটা পর্যন্ত ময়না বিধানসভা কেন্দ্রের ইভিএম স্ট্রং রুমের সি সি টিভির পর্দায় নো সিগন্যাল লেখা দেখা যায় । চিঠিতে মানিক বাবু আরো বলেন,আমি খবর পাওয়া মাত্রই আমার নির্বাচন এজেন্ট ঘটনাটি মেল করে রিটার্নিং অফিসারকে জানায় ।

লিখেছেন , পরে জানলাম যে ঐ দিন রাত্রি সাড়ে নয়টা পর্যন্ত মেরামতির কাজ চলে । এখন জানতে চাই এই দীর্ঘ সময় ধরে সি সি টিভি কি কারন অকেজো ছিল ? কারা এই ঘৃন্যতম অপরাধে সাথে জড়িত ? জনাদেশকে নিয়ে এই ছেলে খেলা কি সুস্থ গণতান্ত্রিক ব্যবস্থার নজির ? একই সাথে এই ঘটনা অথেন্টিক অথরিটিকে দিয়ে তদন্ত সহ সঠিক কারণ জানানোর দাবি করছি ।সংবাদ মাধ্যমের কাছে মানিক বাবু জানিয়েছেন অভিযোগ করলেও নির্বাচন কমিশন থেকে তিনি কোন উত্তর পান নি ।গননার পর তিনি এই বিষয়ে আদালতে যাওয়ার হুমকীও দিয়েছেন।

যদিও কংগ্রেস প্রার্থীর অভিযোগ সম্পর্কে নির্বাচন কমিশন বা কংগ্রেসের বিরোধী রাজনৈতিক দল গুলির প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *