Breaking News

কাঁথির উপ সংশোধনাগারের ১৪ জন কয়েদী করোনা আক্রান্ত

Post Views: website counter

রাজ্য জুড়ে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে মারন ভাইরাস করোনা আক্রান্তের সংখ্যা । এর মধেই পূর্ব মেদিনপুর জেলার কাঁথির উপ সংশোধনাগারে র ১৪ জন বিচারাধীন বন্দী আক্রান্ত হয়েছে। আই খবর ছড়িয়ে পড়তেই রীতিমতো আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে সংশোধনাগারের ভেতরে থাকা বাকী বিচারাধীন বন্দীদের মধ্যে ও তাদের পরিবারের সদস্যদের মধ্যে। করোনা আক্রান্ত বিচারাধীন বন্দীরা উপ সংশোধনাগারে চিকিৎসাধীন বলে জানা গেছে।

কাঁথির উপ সংশোধনাগারে সুপার তথা কাঁথির মহকুমা শাসক অদিত্য বিক্রম মোহন ইরানীকে এই বিষয়ে জানার জন্যে ফোন করা হলেঅ তিনি ফোন ধরেননি। তাই কোন প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

কাঁথির উপ সংশোধনাগারে ১৪ জন বিচারাধীন বন্দী যে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন, তা স্বীকার করে নিয়েছেন কাঁথি পুরসভার স্বাস্থ্য আধিকারিক ডাঃ অনুতোষ পট্টনায়েক। তিনি বলেন ” এটা সত্যি কথা। গত পরশুদিন দু’জন করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন। আবারও ১২ জন কাঁথির উপ সংশোধনাগারে বিচারাধীন বন্দী করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তারা সকলেই চিকিৎসাধীন রয়েছে। তাদের পৌরসভা স্বাস্থ্যদপ্তর থেকে প্রয়োজনীয় সকল সমস্ত চিকিৎসা নিদেশিকা এবং ঔষুধ, মাক্স ও স্যানিটেজার দেওয়া হয়েছে। তিনি আরো জানিয়েছেন কারা দফতর কর্তৃপক্ষ তাদের জন্য আলাদা রুমে ব্যবস্থা করেছেন। সেই সাথে স্থানীয় প্রশাসন ও পুর প্রশাসন মিটিং করে আমরা স্থির করেছি যদি সংশোধনাগার কর্তৃপক্ষ তাদের সেভ হোমে পাঠাতে চান,আমরা ব্যাবস্থা করে দেব ।

কাঁথি পুরসভা প্রশাসক সিদ্ধার্থ মাইতি জানিয়েছেন সংশোধনাগারের বিষয়টি আমাদের অধীনে নয়, এটা জেল সুপারের অধীনে। কাঁথিতে দ্রুত সেভ হোম চালু করা হবে। পৌরসভার স্বাস্থ্য আধিকারিকের সঙ্গে একটি মিটিং করেছি। আগামী কাল হয়তো কাঁথি উপ সংশোধনাগারে বিচারাধীন বন্দীদের সেফ হোমে স্থান্তরিত করা হতে পারে ।

অপরদিকে বিচারাধীন বন্দীদের করোনা আক্রান্ত হওয়ার ঘটনায় কাঁথি আদালতে আতংক ছড়িয়েছে। জানা গেছে মংগলবার থেকে আসামীদের করোনা করোনা পরীক্ষা পর আদালতের এজলাসে তোলা হবে বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *