Breaking News

মান্দারমনির রাস্তা থেকে কিশোরীকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষন

Post Views: website counter

 

পূর্ব মেদিনীপুর জেলার সৈকত শহর মান্দারমনিতে এক কিশোরীকে তার বাড়ির সামনের রাস্তা থেকে জোর করে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষন করার পর বিয়ে করার ঘটনা ঘটলো।ঘটনাটিকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।এই ঘটনার প্রধান অভিযুক্ত ধর্ষিতা কিশোরীর প্রতিবেশী।উল্লেখ্য চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটছে পূর্ব মেদিনিপুর জেলার মান্দারমনি উপকুল থানার রানিয়া গ্রামে।

এই ঘটনার পরে ধর্ষিতা কিশোরীর পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত যুবককে গ্রেফতার করছে পুলিশ। একই সাথে ধর্ষিতা কিশোরীকে উদ্ধার করে। কাঁথি মহিলা থানার পুলিশ জানিয়েছে ধৃত যুবকের নাম গৌর বর। তার বাড়ী মান্দারমনি উপকুল থানার ডরানিয়া গ্রামে। ধৃতকে কাঁথি আদালতে তোলা হয়। বিচারক তার জামিন নাকচ করে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন।

কাঁথি মহিলা থানা সুত্রে জানাগেছে, গত মার্চ মাসে মান্দারমনি উপকুল থানার রানিয়া গ্রামের এই কিশোরীকে বাড়ির সামনে রাস্তা থেকে গাড়িতে করে জোর করে তুলে নিয়ে যায় গৌর বর । এরপর কিশোরীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে বিবাহ করেন। পরে কিশোরীকে ধর্ষন করে বলে অভিযোগ।

এদিকে কিশোরীর খোঁজ না পেয়ে তার পরিবারের লোকেরা তার খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। কিন্তু কোথাও সন্ধান পায়নি। অবশেষে গত ২১ শে মার্চ কাঁথি মহিলা থানার লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন কিশোরী পরিবারের সদস্যরা। ঘটনার তদন্ত নেমে পুলিশ চাঞ্চল্যকর তথ্য উদ্ধার করে। রাতভর কাঁথি মহিলা থানার পুলিশ তদন্ত চালিয়ে ঘটনার মুল অভিযুক্ত গৌরকে গ্রেফতার করে এবং নিখোঁজ কিশোরীকে উদ্ধার করে।

কাঁথি মহিলা থানার ওসি অনুস্কা মাইতি বলেন ” অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুরো ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। যদিও তদন্ত কারণে বেশি কিছু জানাতে রাজী হয়নি তিনি “। ধৃত গৌর বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধি ৩৬৩, ৩৬৫, ৩৭৬ (২), পক্সো আইন সহ একাধিক ধারায় মামলার রুজু করেছে পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *