Breaking News

মেছেদায় বিজেপি কর্মীর উপরে হামলায় তৃনমূল জড়িত নয়

Post Views: website counter

 

বাংলা নতুন বছরের আগের দিন রাতে মেছেদায় বিজেপি কর্মীর উপরে হামলার ঘটনায় তৃনমূল কোন ভাবে জড়িত নয় ।রবিবার সাংবাদিক বৈঠক করে এই দাবি করলো তৃনমূলের স্থানীয় নেতৃত্ব।

উল্লেখ্য গত ১৪ এপ্রিল রাতে পূর্ব মেদিনীপুরের কোলাঘাট থানার মেছেদায় রাতে বাড়ি ফেরার সময় শ্যামপদ দাস নামে এক বিজেপি কর্মীকে বেধড়ক মারধোর ও গায়ে প্রস্বাব করার অভিযোগ ওঠে।এরপর তার চিকিৎসা চলে কাঁকটিয়া স্বাস্থ্যকেন্দ্রে।

শ্যামপদ বাবুর স্ত্রী শেফালী দাস এই বিষয়ে কোলাঘাট থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।
তিনি অভিযোগ করেছেন রাত ১০ টা নাগাদ তাঁর স্বামী বাড়ি ফেরার সময় বেশ কয়েকজন মিলে মারধোর করে এবং সোনার গহনা এবং সাড়ে চার হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়।তারা বিজেপি করার জন্যই তৃনমূলের কিছু স্থানীয় নেতাকর্মী এই ঘটনা ঘটায়।এই ঘটনায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায়।

এর পরেই রবিবার মেছেদায় তৃনমূলের দলীয় পার্টি অফিসে একটি সাংবাদিক বৈঠক ডাকা হয়।এদিন মেছেদার তৃনমূল নেতা সেলিম আলি সহ স্থানীয় তৃনমূল নেতৃত্বের উপস্থিতিতে সাংবাদিক বৈঠক করা হয়।এদিন সাংবাদিক বৈঠকে সাফ বলা হয়,এরকম কোন ঘটনার সাথে তৃনমূল কংগ্রেস জড়িত নয়।মিথ্যে চক্রান্ত করছে বিজেপি।ভোটপরবর্তী এমন ঘটনা অনভিপ্রেত, যদি কেউ জড়িত থাকে পুলিশ তদন্ত করলে স্পষ্ট হবে বলে জানান,শান্তিপুর ১ নম্বর গ্রামপঞ্চায়েতের প্রধান সেলিম আলি।

(জরুরি ঘোষণা: কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের জন্য কয়েকটি বিশেষ হেল্পলাইন চালু করেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এই হেল্পলাইন
নম্বরগুলিতে ফোন করলে অ্যাম্বুল্যান্স বা টেলিমেডিসিন সংক্রান্ত পরিষেবা নিয়ে সহায়তা মিলবে। পাশাপাশি থাকছে একটি সার্বিক
হেল্পলাইন নম্বরও।

• সার্বিক হেল্পলাইন নম্বর: ১৮০০ ৩১৩ ৪৪৪ ২২২

• টেলিমেডিসিন সংক্রান্ত হেল্পলাইন নম্বর: ০৩৩-২৩৫৭৬০০১
• কোভিড-১৯ আক্রান্তদের অ্যাম্বুল্যান্স পরিষেবা সংক্রান্ত হেল্পলাইন নম্বর: ০৩৩-৪০৯০২৯২)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *