Breaking News

ভোটের দিন নন্দীগ্রামে বিজেপি কর্মীর অস্বাভাবিক মৃত্যুতে চাঞ্চল্য

Post Views: website counter

 

বৃহস্পতিবার রাজ্যের দ্বিতীয় দফার নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু হওয়ার ঘণ্টা দু’য়েকের মধ্যেই এক বিজেপি কর্মীর আত্মহত্যাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়াল নন্দীগ্রামের ভেটুকিয়ায়। বৃহস্পতিবার সকালে এক বিজেপি সমর্থকের দেহ উদ্ধার হয় ভেটুকিটায় তাঁর বাড়ির বারান্দা থেকে। মৃতের নাম উদয় দুবে, বয়স ৪৮। পরিবারের দাবি, আত্মীয়ের বাড়িতে রাতে ঘুমোতে গিয়েছিলেন উদয়। স্ত্রী, সন্তানরা অন্য ঘরে ঘুমোচ্ছিলেন। সকালে ঘর থেকে বেরিয়ে এসে পরিবারের লোকেরা দেখেন, বারান্দায় দেহ ঝুলছে।

ঘটনার পরেই এলাকায় পৌঁছে গিয়েছে নন্দীগ্রাম থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী। শুরু হয়েছে তদন্ত। দেহ উদ্ধার করে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে ময়নাতদন্তের জন্য।

অস্বাভাবিক ভাবে মৃতের স্ত্রী অভিযোগ করেছেন , ‘‘বেশ কিছুদিন ধরে তাঁর স্বামীকে তৃনমূলে ভোট দিতে চাপ দেওয়া হচ্ছিলো।এমনকি মঙ্গলবার রাতেও ফোনে চাপ দেওয়া হয়েছিল। উনি (উদয়) জানিয়েছিলেন, তৃণমূলের তরফে ক্রমাগত হুমকি দেওয়া হচ্ছে। ভোট দিতে বেরোলেই সমস্যায় পড়তে হতে পারে। সেই কারণেই মানসিক অশান্তি ও আশঙ্কায় ভুগছিলেন। ঘটনাটি আত্মহত্যা হলেও এই ঘটনার পিছনে ইন্ধন দিয়েছে তৃণমূলই।’’ঘটনাস্থলে পরিবারের সঙ্গে কথা বলতে শুভেন্দু অধিকারী যাচ্ছেন বলেও খবর পাওয়া গিয়েছে।

জানা গিয়েছে, ভেকুটিয়া পূর্বের ২৮ নম্বর বুথের বাসিন্দা উদয়শংকর দুবে। অভিযোগ, তৃণমূলের স্থানীয় কর্মীরাদের চাপে সম্প্রতি কয়েকদিনের জন্য বাড়িও ছা়ড়তে হয় তাঁকে। এ দিন ভোররাতে উদয় দুবে শৌচালয়ে যাওয়ার জন্য নিজের ঘর থেকে বেরোন। ঘণ্টাখানেক হওয়ার পরেও না ফেরায় তাঁকে খুঁজতে ঘর থেকে বেরোয় পরিবারের লোক। সেই সময়ে ওই শৌচালয়েই তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার হয়।যদিও তৃণমূলের তরফ থেকে মানসিক চাপ তৈরির অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে।তৃনমূলের দাবি পারিবারিক বিবাদে এক ব্যাক্তি আত্মহত্যা করেছে।আর তাতে রাজনীতির রং লাগানোর চেষ্টা করছে বিজেপি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *