Breaking News

নন্দীগ্রামের বিজেপি নেতাকে ফোন মমতারঃ চাঞ্চল্য রাজ্য জুড়ে

Post Views: website counter

 

শনিবার রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের প্রথম দফার ভোট গ্রহন হল ।আর সেই দিন একটি অডিও কল প্রকাশ করে রাজ্য রাজনীতিতে আলোড়ন ফেলে দিলো বিজেপি । এই অডিও কলে তৃণমূল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মত গলা শোনা যাচ্ছে ।

বিজেপি-র অভিযোগ তাঁদের তমলুক সাংগঠনিক জেলা সহ সভাপতি প্রলয় পালকে তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ফোন করে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে ফিরে আসার কথা বলছেন।প্রলয়ের সঙ্গে এটা মমতার কথোপকথন বলে বিজেপি বলছে। তৃণমূলও এই দাবি উড়িয়ে দেয়নি । যদিও “এখন সংবাদ” এই অডিয়োর সত্যাসত্য খতিয়ে দেখেনি ।
বিজেপির এই চাঞ্চল্যকর দাবি নিয়ে দ্বিতীয় দফার নির্বাচনের আগে রাজ্য রাজনীতিতে শোরগোল পড়ে গেছে ।

এই অডিও কলের বিষয়ে নন্দীগ্রামে তৃনমূল নেত্রী মমতার প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী শনিবার বলেন, ‘‘উনি (মমতা) রাজনৈতিক ভাবে হতাশ এবং দেউলিয়া হয়ে গিয়েছেন।’’ তাঁর আরও দাবি, “শুধু প্রলয় নয়, পূর্ব মেদিনীপুর জেলার অনেক পুলিশ অফিসারকেও ফোন করেছেন মুখ্যমন্ত্রী ।”

এই প্রসঙ্গে তমলুক জেলা বিজেপি-র সভাপতি নবারুণ নায়েক বলেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বুঝে গেছেন তিনি পরাজিত । তাই তিনি এসব বলছেন। আমরা ভাবছিলাম ১৮০টি আসন পাবো । এর পর সেটা ২০০টি আসনে পৌঁছে যাবে । মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এভাবে প্রলয়কে দলে টানার চেষ্টা করে কিছু করতে পারবেন না । প্রশান্ত কিশোরকে ৫০০ কোটি টাকা না দিয়ে আমাদের দিলে পারতেন, তাতে ওনার ভালো হতো । আসলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হেরে গেছেন ।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *