Breaking News

রাজনৈতিক সংঘর্ষঃতৃণমূল কর্মী খুন

Post Views: website counter

 

প্রদীপ কুমার সিংহ

বুধবার রাতে তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীর সঙ্গে সংযুক্ত মোর্চার কর্মীদের সংঘর্ষ বাধে।এতে করে উভয়ের দলের কয়েকজন আহত হয়। তৃণমূল কংগ্রেসের একজন কর্মী খুন হয়।ঘটনাটি ঘটেছে বারুইপুর থানার অন্তগত বারুইপুর পূর্ব বিধানসভা কেন্দ্রের মধ্য বেলেগাছিতে।

তৃণমূল কংগ্রেস সূত্রে খবর তাদের কয়েকজন আহত হওয়ায় বারুইপুর মহকুমা হাসপাতালে আসে রাতে। তাদের মধ্যে একজনের আশঙ্কাজনক অবস্থায় বারুইপুর মহকুমা হাসপাতালের চিকিৎসক সেই ব্যক্তিকে চিত্তরঞ্জন মেডিকেল হাসপাতালে স্থানান্তরিত করেন।তার নাম রুহুল মিদ্যা( ৬০)। বাড়ি মধ্য বেলেগাছি এলাকায়।

তৃণমূল সূত্রের আরো খবর রাত সাড়ে আটটা নাগাদ মধ্য বেলেগাছিতে নির্বাচনী প্রচারে যাচ্ছিল, এমন সময় সংযুক্ত মোচার কর্মীরা একটা বাড়িতে মিটিং করছিল তখন অতর্কিত হামলা করে তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীদের উপর। এতে করে তৃণমূল কংগ্রেসের কয়েকজন আহত হয় একজনের আশঙ্কাজনক অবস্থায় বারুইপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে আসে। তবে চিকিৎসকরা কলকাতার হাসপাতালে স্থানান্তরিত করেন এবং আর যারা আহত হয়ে ছিলো তাদের প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হয়।

বারুইপুর পূর্ব বিধানসভা কেন্দ্রের সংযুক্ত মোর্চার সমথর্নে সিপিআইএম প্রার্থী স্বপন নস্কর কে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন গতকাল রাত্রে মধ্য বেলেগাছি তে আমরা একটা বাড়িতে বৈঠক চলছিল , আজ সেখানে একটা পদযাত্রা হওয়ার কথা ছিলো।সেই কারনে বৈঠক হচ্ছিলো।এমন সময় তৃণমূলের পক্ষ থেকে তাদের উপর হামলা করে। তার ফলে সংযুক্ত মোর্চার কয়েকজন আহত হন এবং রাত দুটো নাগাদ সংযুক্ত মোর্চার কর্মীরা হাসপাতালে আসেন। ও চিকিৎসা করান।

তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে বলা হয় সংযুক্ত মোর্চার কর্মীরা তাদের উপর হামলা করেছে কিন্তু সংযুক্ত মোর্চার প্রার্থী স্বপন নস্কর বলে যে তৃণমূল পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে আমাদের ওপর হামলা করেছে। সূত্রের খবর রুহুল হাসপাতালে মারা যায়।তিনি তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী। এলাকায় শোকোস্তব্ধ।

বারুইপুর থানার পুলিশ এই ঘটনায় সাতজন সংযুক্ত মোর্চার সাতজন কর্মীকে গ্রেপ্তার করে। আজ তাদের পরিপূর্ণ আদালতে তোলা হয়। আজ দুপুরে বারুইপুর পশ্চিম বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় ও টালিগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী অরূপ বিশ্বাস ওই অঞ্চলে যান। এলাকার তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীদের সঙ্গে কথা বলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *