Breaking News

বিজেপি ও তৃণমূলকে তীব্র সমালোচনা আব্বাস সিদ্দিকি-সূর্যকান্ত মিশ্রের

Post Views: website counter

পূর্ব মেদিনীপুর জেলার কাঁথি ও খেজুরির সংযুক্ত মোর্চা সমর্থিত সিপিএমের প্রার্থীদের সমর্থনে জনসভায় এসে বিজেপি ও তৃনমুলের তীব্র সমালোচনা করলেন সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র ও আইএসএফ নেতা আব্বাস সিদ্দিকি।

বৃহস্পতিবার বিকেলে খেজুরির পূর্বচড়া বাসস্ট্যান্ডে সংযুক্ত মোর্চা সমর্থিত সিপিএম প্রার্থী হিমাংশু দাসের সমর্থনে ও সন্ধ্যায় উত্তর কাঁথি বিধানসভার সংযুক্ত মোর্চা সমর্থিত সিপিএম প্রার্থী সুতনু মাইতির সমর্থনে অযোধ্যাপুর বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন মাঠে আয়োজিত হয় কর্মিসভা ।

খেজুরির সভায় আব্বাস সিদ্দিকি বলেন, নন্দীগ্রামে দিদি ভোটে দাঁড়িয়েছেন। দিদিকে ভোট দেবেন, ঠিকই আছে। ভালো কথা। দিদি জেতার পর যদি বিজেপিতে চলে যান? আর দিদি তো বিজেপির ঘরেরই লোক। অটলবিহারী বাজপেয়ীর হাত ধরে ১৯৯৮ সালে মহাজোট করেছিলেন। নন্দীগ্রামের বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারীর কথা উল্লেখ করে আব্বাস বলেন, উনি কিছুদিন আগে বিজেপিকে তুলোধনা করছিলেন। আজ তৃণমূলকে তুলোধনা করছেন। বলছেন, বিজেপিকে ভোট দিলে এটা করে দেব, ওটা করে দেব। এটাও যে উনি সত্যি বলছেন, তার কোনও গ্যারান্টি আছে?

নিজের বক্তব্য রাখতে গিয়ে বিজেপি ও তৃণমূল সরকারকে তুলোধনা করলেন দলের রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র। এদিন সন্ধ্যায় উত্তর কাঁথি বিধানসভার সংযুক্ত মোর্চা সমর্থিত সিপিএম প্রার্থী সুতনু মাইতির সমর্থনে অযোধ্যাপুর বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন মাঠে আয়োজিত কর্মিসভায় বক্তব্য রাখেন তিনি। এর আগে খেজুরির পূর্বচড়া বাসস্ট্যান্ডে সংযুক্ত মোর্চা সমর্থিত সিপিএম প্রার্থী হিমাংশু দাসের সমর্থনেও কর্মিসভা করেন। পূর্বচড়ার সভায় আইএসএফ নেতা আব্বাস সিদ্দিকি, সিপিএমের জেলা সম্পাদক নিরঞ্জন সিহি সহ অন্যান্য নেতারা বক্তব্য রাখেন। দুই বাম প্রার্থীকে বিপুল ভোটে জয়ী করার আহ্বানও জানানো হয়।

এদিন সূর্যকান্তবাবু  বলেন, দেশকে মুনাফাবাজ, পুঁজিপতি শ্রেণীদের হাতে বিক্রি করে দিতে চাইছে বিজেপি সরকার। বছরে দু’কোটি বেকারের চাকরির প্রতিশ্রুতি এখনও পালন করতে পারেনি। এই ২০২১ সালের বিধানসভা ভোট এখন ঘুরে দাঁড়ানোর পটভূমি। আসুন, বিজেপির বিরুদ্ধে একজোট হয়ে মানুষের জন্য লড়াই করি।  মুখ্যমন্ত্রীর নাম না করে তিনি বলেন, ১০বছর ক্ষমতায় এসেও কিছুই করতে পারেননি। সবকিছুইতেই এই সরকার ডাহা ফেল হয়েছে।  তিনি বাম নেতাদের উদ্দেশে বলেন, কালকে কেউ আপনার সঙ্গে ছিল। মাঝখানে ছেড়ে গিয়েছিল। এখন আবার ফিরে আসতে চায়। তাকে ফিরিয়ে দেবেন না। মানুষ মাত্রেই ভুল করে। অনেক মানুষ আছেন, যাঁরা জীবনের অভিজ্ঞতা থেকে বুঝেছেন। তাঁদের বেলায় দরজা বন্ধ করবেন না। দরজা খোলা রাখবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *