Breaking News

পূর্ব মেদিনীপুরে ১০ জন তৃণমূল নেতাকে বহিস্কার

Post Views: website counter

 

রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহন মন্ত্রী তথা বর্তমানে বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত পূর্ব মেদিনীপুর ১০ জন নেতাকে  ‘অন্তর্ঘাত’-এর অভিযোগে বহিষ্কার করলো রাজ্যের শাসক দল।

গত বছর ১৬ ডিসেম্বর মেদিনীপুরে অমিত শাহের সভায় বিজেপির পতাকা তুলে নেন রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। তাঁর সাথে সেই সভায় তৃনমূলের উত্তর কাঁথির বিধায়ক বনশ্রী মাইতি সহ এই জেলার দুই বাম বিধায়কও বিজেপিতে যোগদান করেছিলেন।তারপর দিন যত এগিয়েছে জেলা তৃণমূলে ভাঙন হয়েছে নানা সময়ে। জেলা পরিষদ, ব্লকের একাধিক গুরুত্বপূর্ণ পদাধিকারীরা একে একে পদ ছাড়েন, যোগ দেন বিজেপিতে।

একই সাথে গুঞ্জন ছিলো এখনো অনেকে তৃণমূলে থেকেও বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে যোগাযোগ করছেন। সম্ভবত তা নজর এড়ায়নি জেলা তৃণমূল নেতৃত্বের। নির্বাচনের আগে ভাঙন রুখতে কড়া বার্তা দিতেই ভোটের আগে পূর্ব মেদিনীপুর জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব সন্দেহের নজরে থাকা একগুচ্ছ দলীয় নেতৃত্বকে সরিয়ে দিলো।

এ দিন সাংবাদিক বৈঠক করে দলের সিদ্ধান্তের কথা জানান তৃণমূল জেলা সভাপতি সৌমেন মহাপাত্র।তৃনমূলের জেলা সভাপতির দেওয়া তালিকা অনুযায়ী বহিষ্কৃতদের মধ্যে আছেন পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি দিবাকর জানা, তাঁর স্ত্রী তনুশ্রী জানা-সহ জেলা পরিষদের একাধিক সদস্য।প্রসঙ্গত দিবাকর জানা এর আগেও বহিষ্কৃত করেছিলো তৃনমূল।

কিন্তু শুভেন্দু বাবু দল বদলের পরে তিনি তৃনমূলের ফিরতে চেয়ে আবেদন জানানোয় সম্প্রতি তাঁকে দলে ফেরানোও হয়েছিল। কিন্তু তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনি দলে ফিরেই শুভেন্দু অধিকারীর পক্ষে গোপনে গোপনে কাজ করছিলেন।সেই অভিযোগের সতত্যা দল পেয়েছে বলেই আবারও দল তাঁকে ফের বিতাড়িত করলো বলে সৌমেন মহাপাত্র জানিয়েছেন।উল্লেখ্য সকলেই শহীদ মাতঙ্গিনী ব্লক এলাকার বাসিন্দা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *