Breaking News

ঠেলায় পড়ে রাম মন্দিরে পুজা দিলেন মাননীয়াঃশুভেন্দু অধিকারী

Post Views: website counter

 

‘‘আপনি জানতে চেয়েছিলেন না, নন্দীগ্রামে কি দাঁড়াব? আসলে আপনাকে নন্দীগ্রামে দাঁড়াতে হইবেই, আর হারিয়া যাইতে হইবেই।’’বুধবার নন্দীগ্রাম বাস স্ট্যান্ডের কাছে নিজের দলীয় নির্বাচনী কার্যালয় উদ্বোধনে এসে এভাবেই তৃনমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমন করলেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী।তাঁকে “ভেজাল হিন্দু” বলেও কটাক্ষ করেন শুভেন্দু।

শুভেন্দু অধিকারী বলেন, আমি চাই উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগিজি একবার এখানে আসে ভাষণ দিন। স্তোত্র পড়ুন। তিনি গোরক্ষপুর মঠের সাধু। তাহলে স্তোত্রপাঠ কী সেটা মানুষ বুঝবেন।

নির্বাচনী কার্যালয় উদ্বোধনের পরে টেঙ্গোয়া মোড় থেকে একটি মিছিল হয়। সেখানে মমতাকে কটাক্ষ করে শুভেন্দু অধিকারী বলেন নির্বাচনের দিন যত এগিয়ে আসছে, তত বেশি নিজেকে হিন্দু প্রমাণ করতে তৎপর হয়ে উঠেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।বলেন, ভেজাল হিন্দু। পদবিটা ব্যানার্জি হলে নিজেকে হিন্দু বলতে হচ্ছে কেন? এখন উনি আর ইনশাল্লাহ বলছেন না। বন্ধ করে দিয়েছেন। এখন শুধু হিন্দু ধর্ম বোঝেন। আমার ধর্ম তো মানবতার ধর্ম।

সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে নন্দীগ্রামের বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী বলেন চটি পরে মমতা জানকীনাথ মন্দিরে ভগবান রামের কাছে পুজো দিয়েছেন। এখন হিন্দু ধর্মের ওপর জোর দিচ্ছেন তিনি। কিন্তু হিন্দু ধর্মকে যে অপমান করেছিল, সেই সায়নী ঘোষকে দলে টিকিট দিয়েছেন তিনি। এদিন শুভেন্দু নিজের ফোনে মমতার পাঠ করা কিছু মন্ত্র শোনান। যেখানে শুভেন্দুর দাবি মমতা ভুল উচ্চারণে মন্ত্র পাঠ করছেন।

বুধবার শুভেন্দুর মুখে ‘হীরক রাজার দেশে’র বিখ্যাত সংলাপের অনুকরণও শোনা যায়। তিনি বলেন, ‘‘দড়ি ধরে মারো টান, রানি হবে খান খান।’’ মঙ্গলবার মমতা দলের কর্মিসভায় তিনি মনোনয়ন জমা দেবেন কি না তার অনুমতি চেয়েছিলেন। সেই প্রসঙ্গ টেনে মমতাকে এখানে দাঁড়াতে বাধ্য করার পাশাপাশি হারিয়ে পাঠানোর ব্যাবস্থা করা হয়েছে বলেও হুশিয়ারি দিয়েছেন এই বিজেপি নেতা।

একই সঙ্গে বুধবার অনেক আশ্বাসও দিয়েছেন শুভেন্দু। তিনি বলেন,বিজেপি ক্ষমতায় এলে চিট ফান্ডের টাকা ফেরৎ করাব।সেই সাথে তাঁর দাবি ২০১১ সালে চিটফান্ডের টাকায় নির্বাচন লড়েছিলো তৃনমূল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *