Breaking News

বায়ু সেনা দিবসে স্পষ্ট ঘোষনা:‘লাদাখে দ্রুত পালটা দিতে তৈরি বাহিনী’

Post Views: website counter

 

করোনা মহামারী আবহেই অন্যান্য বছরের মত এদিন পালিত হল ৮৮ তম ভারতীয় বায়ুসেনা দিবস । দিল্লির কাছে গাজিয়াবাদের হিন্দানে এয়ারফোর্স স্টেশনে বিভিন্ন শক্তিশালী যুদ্ধবিমান নিজেদের শক্তি প্রদর্শন করে। নজর কেড়েছে রাফালের কারিকুরিও। অল্প জায়গার মধ্যে নিজের ক্ষমতার প্রদর্শন করল ‘দ্য বিউটি অ্যান্ড দ্য বিস্ট’।
যাত্রা শুরু সেই ১৯৩২ সাল থেকে। তারপর থেকে এই দিনটি স্মরণ করে পালন করা হয় বায়ুসেনা দিবস।

ভারতীয় বায়ুসেনা দিবসেও প্রতিবেশী দেশ চিন কিংবা পাকিস্থানের নাম না রণহুঙ্কার দিয়ে রাখলেন বায়ু সেনাপ্রধান রাকেশ কুমার সিং ভাদুরিয়া। তাঁর কথায়, “যে কোনও পরিস্থিতিতে ভারতের সার্বভৌমত্ব রক্ষা করতে প্রস্তুত সেনা। এমনকী, মুহূর্তের মধ্যে শত্রুকে জবাব দিতেও তৈরি তাঁরা। লাদাখে দ্রুত পালটা দিতে তৈরি বায়ুসেনা।”

এদিন বায়ুসেনা দিবস উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী ট্যুইটারে জানিয়েছেন, ‘বায়ুসেনা দিবসে ভারতীয় বায়ুসেনা বাহিনীর সাহসী যোদ্ধাদের অনেক অনেক অভিনন্দন। সারা দেশকে আকাশপে সুরক্ষিত রাখাই শুধু বায়ুসেনার কাজ নয়, গোটা দেশবাসীই ভারতীয় সেনাবাহিনীর কাছেই কৃতজ্ঞ। বিপর্যয়ের সময় মানবতার সেবায় বায়ুসেনা অগ্রণী ভূমিকা পালন করে। ভারত মাতার সুরক্ষার জন্য আপনাদের সাহস, বীরত্ব ও প্রাণ উত্‍সর্গ- সকল দেশবাসীর কাছেই অনুপ্রেরণার।’

নিজেদের কারিকুরি দেখাল তেজস এলসিএ, জাগুয়ার, মিগ-২৯, মিগ-২১ ও সুখোই-৩০। কিন্তু বলাইবাহুল্য এদিন সকলের নজর ছিল সদ্য আসা রাফালের উপর। প্রসঙ্গত, অত্যাধুনিক এই রাফাল যুদ্ধবিমান ভারতীয় বায়ুসেনাকে আরও শক্তিশালী করবে বলেই সমর বিশেষজ্ঞদের দাবি। যে কারণে ভারতও চিনের সঙ্গে এই যুদ্ধ আবহের মধ্যে রাফাল অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করেন অনেকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *