Breaking News

বীরাঙ্গণা মাতঙ্গিনী হাজরার ৭৮ তম আত্মবলিদান দিবস পালন করলো তাম্রলিপ্ত পৌরসভা

Post Views: website counter

১৯৪২ সালে ২৯ সেপ্টেম্বর তমলুক থানা দখল করতে গিয়ে ইংরেজদের গুলিতে প্রাণ হারান ৭২ বছরের বীরাঙ্গণা মাতঙ্গিনী হাজরা।

প্রয়াত স্বাধীনতা সংগ্রামী অজয় মুখার্জির নেতৃত্বে তমলুক থানা দখল করার মিছিলে বীরাঙ্গণা মাতঙ্গিনী হাজরা প্রথম সারিতে ছিলেন। ঐদিন মাতঙ্গিনী হাজরা সহ ১২ জন ব্রিটিশের গুলিতে শহীদ হন।

যার ফলস্বরুপ সর্বাধিনায়ক সতীশচন্দ্র সামন্ত নেতৃত্বে ১৯৪২ সালের ১৭ ডিসেম্বর তাম্রলিপ্ত জাতীয় সরকার গঠন করা হয়। যা ১৯৪৪ সালের ১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রায় ২১ মাস স্থায়ী হয়েছিল তাম্রলিপ্ত জাতীয় সরকার।

বীর বীরাঙ্গনা মাতঙ্গিনী হাজরার আত্ম বলিদান দিবসে তমলুকের বান পুকুর পাড়ে শহীদ বেদীতে পুষ্পার্ঘ্য নিবেদন করেন তাম্রলিপ্ত পৌরসভার প্রশাসক রবীন্দ্রনাথ সেন, উপস্থিত ছিলেন প্রাক্তন বিধায়ক ব্রহ্মাময় নন্দ। স্বাধীনতা সংগ্রামীদের শ্রদ্ধা জানাতে বর্তমান সমাজে যুবকদের এগিয়ে আসতে আহ্বান জানান তারা।
……………………………………………………………..
মাতঙ্গিনী হাজরার প্রাথমিক জীবন সম্পর্কে বিশেষ কিছু জানা যায়না। শুধু এটুকুই জানা যায় যে, ১৮৬৯ খ্রিস্টাব্দে তমলুকের অদূরে আলিনান নামে একটি ছোটো গ্রামে (ডাকঘর: হোগলা) এক দরিদ্র কৃষক পরিবারে তার জন্ম হয়েছিল। দারিদ্র্যের কারণে বাল্যকালে প্রথাগত শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হয়েছিলেন মাতঙ্গিনী।

অতি অল্প বয়সেই তার বিয়ে হয়ে গিয়েছিল। তিনি মাত্র আঠারো বছর বয়সেই নিঃসন্তান অবস্থায় বিধবা হয়েছিলেন।

মেদিনীপুর জেলার স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিহাসের একটি উল্লেখযোগ্য বৈশিষ্ট্য ছিল নারীদের এই আন্দোলনে যোগদান।

১৯০৫ খ্রিস্টাব্দে প্রত্যক্ষভাবে ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনের সঙ্গে জড়িয়ে পড়েন মাতঙ্গিনী হাজরা। মতাদর্শগতভাবে তিনি ছিলেন একজন গান্ধীবাদী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *