Breaking News

নদীর পাড়ে কবর খোঁড়াকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা

Post Views: website counter

করোনায় মৃত্যু হলে সেই মৃতদেহ গুলোকে কবর দেওয়া হবে। তাই আগাম প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাটি খোঁড়া হচ্ছিল আর সেই মাটি খোড়া কে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা আরামবাগে। উত্তেজনা থামাতে বিশাল পুলিশবাহিনী ও প্রশাসনের কর্তারা গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।ঘটনাটি ঘটেছে আরামবাগ থানার দৌলতপুরের দারকেশ্বর নদীর বাঁধ এলাকায়।

জানা গেছে, করোণা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হলে সেই মৃতদেহ গুলিকে নিয়ে গিয়ে মাটিচাপা দেওয়া হবে দ্বারকেশর নদীর বাঁধ এলাকায়। মঙ্গলবার সকালে প্রশাসনের তরফ থেকে দারকেশ্বর নদীর পাড়ে চলছিল মাটি খোঁড়ার কাজ ওই সময় এলাকার বাসিন্দারা গর্ত খোঁড়ার কাজ চলছে দেখে ঘটনাস্থলে গ্রামের লোকজন হাজির হয়। এরপরে এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি এই নদীর জল নিয়ে আমাদেরকে চাষ করতে হয়। এই নদীর জলে কাপড় কাচা থেকে আরম্ভ করে স্নান করা সবই করা হয়। করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃতদেহগুলি এখানে কবর দিলে তা থেকে ভাইরাস ছড়াবে মাটিতে মৃত দেহ পচে দুর্গন্ধ ছড়াবে। আমরাও করোনায় আক্রান্ত হয়ে পরবো। এই নিয়ে গ্রামবাসীরা মাটি খোঁড়ার কাজে বাধা দেয় এর পরেই পুলিশের সাথে বচসা শুরু হয় ।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় পুলিশের উচ্চপদস্থ কর্তারা অবশেষে আলোচনার মাধ্যমে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনে প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানা যায় আগে থেকেই আগাম প্রস্তুতি নেয়ার কাজ চলছিল। এলাকাবাসীরা বাধা দেয়ার ফলে মাটি খোঁড়ার কাজ বন্ধ হয়ে যাই বলে জানা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *