Breaking News

ভগবানপুরে মাঠ থেকে যুবকের রক্তাক্ত মৃতদেহ উদ্ধার

Post Views: website counter

 

পূর্ব মেদিনীপুর জেলার খেজুরী বিধানসভার অন্তর্গত গড়বাড়ি-২ গ্রাম পঞ্চায়েতের বংশীধর ১০ নং বুথ এলাকায় বৃহস্পতিবার সকালে এক
যুবকের ক্ষতবিক্ষত মৃতদেহ উদ্ধারকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়ালো। জানা যাচ্ছে, মৃত যুবক শম্ভু বারুই (২৫) গড়বাড়ি-২ গ্রাম পঞ্চায়েতের বংশীধর ১০ নং বুথের বাসিন্দা তপন বারুইর ছেলে।খেজুরি বিধানসভার অন্তর্গত ভূপতিনগর থানার নাজির বাজার এলাকার ঘটনা।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে এটা কোনো রকম রাজনৈতিক ইস্যু নয় বলেই প্রাথমিক ভাবে মনে হয়েছে এলাকাবাসী । তাঁরা জানান মৃত যুবক শম্ভু বাদে তার পরিবারে এক ভাই, মা ও বাবা আছেন। শম্ভু প্রতিবেশি রাজ্য উড়িষ্যায় রাজমিস্ত্রির কাজে যুক্ত ছিল।স্থানীয়দের থেকে আরো জানা যাচ্ছে, গত দুদিন আগেই বাড়ি আসে এই যুবক।

মৃত শম্ভুকে পাড়ার বন্ধু বান্ধব রাতে ফোন করে। ডেকে নিয়ে যায় তার পর সঠিক কি ঘটেছে সেই বিষয়ে খোঁজ খবর করছে পুলিশ। বিশেষ সূত্রে খবর প্রেমের সম্পর্কের কথাও শোনা যাচ্ছে।

ওদের পাড়ার মনসা পুজোকে কেন্দ্র করে শম্ভু সিহ কিছু জনের মধ্যে একটু সমস্যা ছিল বলেই জানা যাচ্ছে। পুলিশ খিরিশ বাড়ি ১১ নম্বর বুথ এলাকা থেকে মৃত দেহ ও একটি মোবাইল ফোন এবং সিম উদ্ধার করেছে।

এই ঘটনার জন্য তৃণমূলকেই দায়ী করেছেন বিজেপির কাঁথি সাংগঠনিক জেলার সভাপতি অনুপ চক্রবর্তী। ওনার বক্তব্য তৃণমূলের দুষ্কৃতীরাই এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত। ভোট পরবর্তী আতঙ্কের পরিবেশ তৈরির জন্যই এই ঘটনা বলেই দাবি করেছেন তিনি ।

এই যুবকের ক্ষতবিক্ষত মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনায় গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের কো অর্ডিনেটার তথা প্রাক্তন সহকারী সভাধিপতি মামুদ হোসেন। মামুদ হোসেন বলেন এই মৃত্যুর ঘটনা লেনদেন সংক্রান্ত কারণে ঘটেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। তৃণমূল কংগ্রেস দলগত ভাবে এই ঘটনার সাথে যুক্ত নয়।বিজেপি ঘটনাকে রাজনৈতিক রং দেওয়া অভ্যাসে পরিণত করেছে।এই দুঃখজনক ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত পূর্বক দোষীদের শাস্তি প্রদানের দাবী জানিয়েছেন” ।

অপরদিকে ঘটনাটা সামনে আসতেই এলাকায় উত্তেজনা ছড়ায়। স্থানীয় মানুষ বিক্ষোভে ফেটে পড়েন।পরিস্থিতি আয়ত্তে আনার চেষ্টা করে পুলিশ।ভূপতিনগরের পাশাপাশি মারিশদা,খেজুরি ও ভগবানপুর থানার পুলিশ , মহিলা পুলিশ আনা হয়েছে গ্রামের মহিলাদের কে আটকানোর জন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *