Breaking News

নন্দীগ্রামে নির্বাচন পরবর্তী সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখার আবেদন দিব্যেন্দুর

Post Views: website counter

 

জমি রক্ষার আন্দোলনের ধাত্রী ভূমি নন্দীগ্রামে নির্বাচন পরবর্তী পরিস্থিতিতে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখতে প্রশাসনকে ব্যাবস্থা গ্রহনের আবেদন জানালেন তমলুকের তৃনমূল সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারী।বৃহস্পতিবার ভোট গ্রহন শেষ হওয়ার পরে পূর্ব মেদিনীপুরের জেলা শাসক স্মিতা পান্ডে ও জেলা পুলিশ সুপার সুনীল যাদবকে চিঠি লিখে এই অনুরোধ করেন তমলুকের সাংসদ।একই আবেদন জানিয়ে রাজ্যের মুখ্য নির্বাচন আধিকারীককেও চিঠি লিখেছেন তিনি ।

রাজ্যের ২৯৪টা আসনে ৮ দফায় ভোট গ্রহনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশন।প্রথম দফার ভোট হয়েছে ২৬ মার্চ।দ্বিতীয় দফার হল ১ এপ্রিল।ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়াকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই দফায় দফায় উত্তপ্ত হয়েছ নন্দীগ্রাম ৷ কখনও বোমাবাজির অভিযোগ, কখনও শুভেন্দুর গাড়িতে হামলা, আবার কখনও মমতার সামনেই বিবাদে জড়িয়েছে বিবাদমান দুই দলের সমর্থক ৷ যার জেরে ছড়িয়েছে উত্তেজনা।আর এই নিয়েই এবার পূর্ব মেদিনীপুরের জেলাশাসকের কাছে চিঠি পাঠালেন তৃণমূল সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারী ৷

চিঠির শুরুতেই নন্দীগ্রামে ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়া মোটের উপর শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করার জন্য ধন্যবাদ জানান জেলাশাসককে ৷ কিন্তু তারপরেই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে এলাকার সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ভূলুণ্ঠিত হয়েছে বলে অভিযোগ করেন তিনি ৷ লিখেছেন, এলাকার রাজনৈতিক পরিস্থিতির দিকে নজর রাখলে, যেভাবে এলাকার সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বাতাবরণকে ভূলুণ্ঠিত করা হয়েছে, তাতে এলাকাবাসীদের স্বাভাবিক জনজীবন ব্যাহত হয়েছে ৷পরিস্থিতি যাতে আরও খারাপের দিকে না যায়, তা নিশ্চিত করার জন্য জেলাশাসকের কাছে অনুরোধ করেছেন দিব্যেন্দু অধিকারী ৷

স্থানীয়  তৃণমূল নেতৃত্ব এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানানোর পাশাপাশি বলেছেন নন্দীগ্রামের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করার চেষ্টা করছে বিজেপি।একই সাথে তাঁরা দাবি করেছেন হাজার প্ররোচনার মধ্যেও নন্দীগ্রামের মানুষ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রেখেছে । উল্লেখ্য নন্দীগ্রাম বিধানসভা আসনে ৮ জন প্রার্থী আছে ।তবে মুলত প্রতিদ্বন্ধিতা হচ্ছে তৃনমুল প্রার্থী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়,বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী ও সংযুক্ত মোর্চার সিপিএম প্রার্থী মীনাক্ষী মুখার্জীর মধ্যে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *