Breaking News

ইরানী মিত্র নিয়ে এলেন ছেলে – মেয়েদের সামার কালেকশন

Post Views: website counter

ইন্দ্রজিৎ আইচ

সামনেই পয়লা বৈশাখ। একেবারে নতুন বছর ১৪২৮। সবাই তৈরি হচ্ছে বাংলার এই বছর টাকে একটু নতুন ভাবে সেলিব্রেট করার। আবার বাইরে এখনই বিরাট গরম পরে গেছে। হালকা কটন পোশাক ছাড়া আর কিছু পড়ার উপায় নেই। তাই চাই এই গরমে হালকা অথচ আধুনিক পোশাক যেটা পড়লে আপনাকে বেশ স্টাইলিশ লাগবে। এইসব কথা ভেবে এই শহরের নামি ফ্যাশন ডিজাইনার ইরানী মিত্র নিয়ে এলেন ছেলে মেয়ে দের জন্য নতুন কিছু সামার কালেকশন।

৩৭৭এ প্রিন্স আনোয়ার শাহ রোড (ঠিক সাউথ সিটির আগের বাড়ির দোতলায়) ১৫০০ স্কোযের ফুটের নিজস্ব স্টুডিওতে এক সাংবাদিক সম্মেলনে ইরানী মিত্র এই বৈশাখের সামার কালেকশন লঞ্চ করলেন বিভিন্ন মডেলদের দিয়ে । এক সাক্ষাৎকারে বিখ্যাত ফ্যাশন ডিজাইনার ইরানী মিত্র জানালেন আমি সবসময় আধুনিক নানাবিধ পোশাকের ওপর নানা ডিজাইন করে থাকি।

যেমন এবারের সামার কালেকশনে নতুনত্ব হলো ছেলেদের জন্য zipped পাঞ্জাবী, এটা তৈরি করেছি কটন প্রিন্ট গামছা, সিল্ক ও নানা বিধ ফ্রেব্রিক দিয়ে। যাতে গরমে আরাম পাওয়া যায়।এই ছেলেদের এই ধরণের পাঞ্জাবী পরে স্টুডিওতে শোকেস করলেন এই শহরের বিখ্যাত মডেল রেহান কবির ও শুভজিত ঘোষ। ফিমেল কালেকশনে ক্যাজুয়াল পোশাক এর মধ্যে থাকছে আশামেট্রিকাল লুঙ্গি। যেটার ওপরে শট কাপ্তান পড়তে পারে মেয়েরা। এই পোশাক টা যারা এই দিন শোকেস করেন তারা হলেন মডেল শ্রাবনী মন্ডল ও সোমা দাস।এই নতুন বাংলা বছরে টেক্সচার কটন প্রিন্ট শাড়ি উইথ সেলফ বর্ডার দেওয়া নতুন ধরনের মেয়েদের পোশাক শোকেস করলেন সুজাতা সিংহ ও জয়ন্তী দাস।

পাশাপাশি ইন্ডো ওয়েস্টার্ন কটন শাড়ি উইথ জারদোসি শাড়ি শোকেস করলেন রিক্তা আচারিয়া, সোমা দাস এবং ইরানী মিত্র নিজেও। মেকআপ এ ছিলেন রেহানা, অনুমিতা ও শর্মিষ্ঠা। ফটোগ্রাফার ছিলেন সোমনাথ হাজরা। এক প্রশ্নের উত্তরে ইরানী মিত্র জানালেন সিঙ্গাপুর, আমেরিকা, দুবাই, ইংল্যান্ড, বাংলাদেশ সহ সব দেশে তার পোশাক, তার ডিজাইন বিশ্ব ব্যাপী সমাদৃত হয়েছে ও হচ্ছে। টেলিভিশন, ফিল্ম, সিরিয়াল এসব তো আছেই, পাশাপাশি ছোট থেকে বড়, ছেলে মেয়ের বিভিন্ন পোশাক ছাড়াও এখানে এই স্টুডিওতে পাবেন
বিছানার নানা ডিজাইনের চাদর, জানলা-দরজার পর্দা, কটন এর ছাতা, জুয়েলারী, এমব্রয়ডারি আয়না, ফটোফ্রেম বিভিন্ন ডিজাইন এর মাস্ক, আরো অনেক কিছু। ট্রায়াল রুম আছে সম্পূর্ণ বাতানোকুল ও সুলভ মূল্যে পাওয়া যাবে সব কিছু।

১৭০০ টাকা থেকে শুরু পোশাকের দাম। নিত্য নতুন ভাবনায়, দেশ বিদেশের নানা বর্ণের ও নানা ভাষার বিভিন্ন মানুষের রুচিশীল পোশাকের কারিগর হলেন এই কলকাতার বিখ্যাত ফ্যাশন ডিজাইনার ইরানী মিত্র।তার একটাই লক্ষ প্রতিটা ডিজাইন নিজের ভাবনায় প্রতিনিয়ত মানুষের সামনে তুলে ধরা ও ক্রিয়েটিভ কাজে নিজেকে নিয়োজিত রাখা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *