Breaking News

তমলুক আদালতে জামিন পাওয়া আনিসুরকে গ্রেফতারের নির্দেশ কোলকাতা উচ্চ আদালতের

Post Views: website counter

রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের আগে আবার রাজনীতিতে সক্রিয় হওয়ার ইঙ্গিত দিয়েও ধাক্কা খেলেন পূর্ব মেদিনীপুরের পাঁশকুড়ার একদা দাপুটে বিজেপি নেতা আনিসুর রহমান।তাঁর জামিনের উপর স্থগিতাদেশ দিয়ে আনিসুর রহমানকে ফের গ্রেপ্তারির নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট।ফলে এই মামলা আরো জটিল আকার ধারন করেছে।

গত ২০১৯ সালে পাঁশকুড়ায় দুর্গাপুজার সময় খুন হন স্থানীয় তৃণমূল নেতা কুরবান শা। এই ঘটনায় গ্রেপ্তার হন প্রাক্তন তৃণমূল নেতা তথা বিজেপির আনিসুর রহমান । তাঁর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র-সহ একাধিক ধারায় মামলা রুজু হয়।সেই থেকে জেল বন্দি থাকলেও মাঝে মধ্যেই ফেসবুক পেজে সচল থাকের অভিযোগ উঠে আনিসুর রহমানের বিরুদ্ধে।গত কয়েক মাসে মাঝে মধ্যেই আনিসুর রহমান খবরের শিরোনামে উঠে আসছে।শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে যোগ দানের পর থেকেই সেই অভিযোগ বাড়ছে।

এর মধ্যেই আনিসুরের শনিবার ফেসবুক পেজে হওয়া এক পোষ্টকে ঘিরে রাজ্য রাজনীতিতে তোলপাড়। এদিন আচমকা অনিসুর রহমানের ফেসবুক পেজ সচল হয়ে যায়। সেখানে পরপর দুটি পোস্ট করা হয়। সেখানে প্রথম পোস্টে বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীকে চ্যালেঞ্জ জানানোর পাশাপাশি তৃণমূলে ফেরার কথা বলা হয়।কিছুক্ষন পরে আবারও পোস্টে তৃনমূলের জনপ্রিয় ” খেলা হবে ” স্লোগানের সঙ্গে আনিসুরের বিভিন্ন ছবি মিশিয়ে দেওয়া হয়।

পূর্ব মেদিনীপুর জেলার রাজনৈতিক মহল ও তমলুক আদালত সুত্রে জানা গেছে শুভেন্দুর বিজেপিতে যোগদানের সম্ভাবনা স্পষ্ট হওয়ার পর থেকেই তৃনমূল এই রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহন মন্ত্রীর বিরোধীদের শক্তিশালি করে তোলার প্রক্রিয়া শুরু করে ।আনিসুর রহমানকে জেলের বাহিরে আনার প্রক্রিয়া সেই প্রচেষ্টার অঙ্গ।তাই ২৬ ফেব্রুয়ারি রাজ্য সরকার আনিসুর রহমানের বিরুদ্ধে থাকা খুনের মামলা প্রত্যাহারের নির্দেশনামা জারি করে রাজ্য সরকার।

সরকারি আইনজীবী সেই মতো তমলুক আদালতে মামলা প্রত্যাহারের আবেদন জানান। মঙ্গলবার সেই ছাড়পত্র দেয় তমলুক আদালত। জামিন হয় আনিসুর রহমানের। এর মধ্যেই এদিন সকালে রাজ্য সরকারের ওই নির্দেশনামাকে চ্যালেঞ্জ করে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয় কুরবানের পরিবার।
বিচারপতি সব্যসাচী ভট্টাচার্যর এজলাসে মামলাটির শুনানি হয় ।সুত্রের থেকে জানা যাচ্ছে তমলুক আদালতের নির্দেশে স্থগিতাদেশ দিয়ে আনিসুর রহমানকে ছেড়ে দেওয়া হলে ফের তাঁকে গ্রেপ্তারির নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *