Breaking News

নির্বাচনের আগে সিবিআইকে ব্যাবহার করে বিজেপিঃকুনাল ঘোষ

Post Views: website counter

 

বিজেপির দুর্নীতি আর বিশ্বাসঘাতকতা মানুষ ধরে ফেলেছে।তাই কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিবিআইকে ব্যাবহার করে বিরোধীদের ভয় দেখানের চেষ্টা করছে।ইভিএমেই বিজেপিকে সাধারন মানুষ যোগ্য জবাব দেবে বলে হুশিয়ারি দিয়েছেন তৃনমুলের মুখপাত্র কুনাল ঘোষ।পূর্ব মেদিনীপুর জেলার রামনগর আরএসএ ময়দান থেকে হুশিয়ারি দিয়েছেন।তৃণমূল কংগ্রেসের আহ্বানে বুধবারের এই জনসভায় জনসুনামী আছড়ে পড়ে।

তৃনমূলের থেকে দাবি করা হয়েছে রামনগর-১ ও রামনগর-২ ব্লকের তৃণমূল কর্মীরাই মাঠকে ভরিয়ে তুলেন। সমসংখ্যক লোক মাঠে ঢুকতেই পারেন নি।সভায় সভাপতিত্ব করেন রামনগর-১ ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি নিতাই সার। সভায় বক্তব্য রাখেন রাজ্য তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র কুনাল ঘোষ, রাজ্য যুব নেতা তথা অভিনেতা সোহম চক্রবর্তী, জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি ডঃ সৌমেন মহাপাত্র, জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের কোঅরডিনেটর তথা বিধায়ক অখিল গিরি, বিধায়ক অধ্যাপক জ্যোতির্ময় কর, জেলা তৃণমূল যুব কংগ্রেসর সভাপতি সুপ্রকাশ গিরি, শম্পা মহাপাত্র, খালেক কাজী, বিশ্বরঞ্জন মিশ্র,অশোক বিশাল প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

পূর্ব মেদিনীপুর তথা বাংলার মানুষ বিশ্বাসঘাতক ও মেরুকরণের রাজনীতির কারবারিদের মুখের মত জবাব দেবেন বলে জানান বিধায়ক অখিল গিরি।

জেলা সভাপতি ডঃ সৌমেন মহাপাত্র অবিভক্ত মেদিনীপুর জেলা কে তৃণমূল কংগ্রেসের দূর্গ বলে অভিহিত করেন। জননেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নন্দীগ্রাম থেকে বিধায়ক নির্বাচিত হয়ে পূর্ব মেদিনীপুর জেলা থেকে তৃতীয় বারের জন্য মা-মাটি-মানুষের সরকারের মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিয়ে শান্তি, সম্প্রীতি ও উন্নয়নের জয়যাত্রাকে এগিয়ে নিয়ে যাবেন।

“রাজ্য তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র কুনাল ঘোষ বিজেপি কে মিথ্যাচার,বিভেদ, বিদ্বেষ ও ঘৃণার রাজনীতির আতুঁড়ঘর বলে অভিহিত করেন। বিজেপি কে জনবিরোধী রাজনীতির ধারক-বাহক বলে অভিহিত করেন কুণাল ঘোষ।রাজনীতির নামে ধর্মকে ব্যবহার করে সাম্প্রদায়িক বিভাজনের পথে চলেছেন বিজেপির বন্ধুরা। শুভেন্দু অধিকারী সহ অধিকারী পরিবার মমতার ক্ষমতা ভোগ করে সারদা-নারদা কেলেংকারী থেকে বাঁচতে বিজেপির পতাকাতলে সামিল হয়েছেন বলে অভিযোগ করেন কুণাল ঘোষ।

মুকুল রায়,শোভন চ্যাটার্জী,রাজীব ব্যানার্জী রা গদ্দারী করছেন তৃণমূল কংগ্রেস ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাথে। দুর্নীতির মুখোশ খুলে পড়েছে বিশ্বাসঘাতক দের। জনতার আদালতে বিজেপির স্বৈরাচার ও দ্বিচারিতার বিচার হবে।জননেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে তৃতীয় বারের জন্য মা-মাটি-মানুষের সরকারের মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচিত করার আবেদন জানান তিনি।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *