Breaking News

রাতের অন্ধকারে বিজেপি কর্মীদের বাড়িতে হামলা

Post Views: website counter

 

ফের রাতের অন্ধকারে বিজেপি কর্মী সমর্থকদের উপরে হামলা চালানোর অভিযোগ উঠলো।
জানা গেছে মঙ্গলবার রাতে ভারতীয় জনতা পার্টি কাঁথি সাংগঠনিক জেলার পটাশপুর-২ পূর্ব মন্ডলের ১৪ নং আড়গোয়াল অঞ্চলের ইচ্ছাবাড়ি গ্রামে হামলার ঘটনা ঘটেছে।ভারতীয় জনতা পার্টির নেতৃত্বের অভিযোগ তাঁদের বেশকিছু সমর্থক কর্মীর উপর রাত প্রায় দশটা’র সময়, তৃণমূল কংগ্রেসে আশ্রীত দুষ্কৃতীরা হামলা চালায়।

দুষ্কৃতীরা বেশ কয়েকটা বোমা চার্জ করে।এই হামলার ঘটনায় তাঁদের দলের পাঁচজন সমর্থক আহত হয়েছে বলে অভিযোগ বিজেপির।আহত বিজেপি কর্মীরা হলেন চন্দন দোলাই,প্রশান্ত দোলাই,পীযূষ জানা,স্বাধীন দোলাই এবং সৌমেন গায়েন।

বিজেপি সুত্রে জানা গেছে চন্দন দোলাই,প্রশান্ত দোলাই,পীযূষ জানা গুরুতর আহত হয়েছে।এদের এগরা সুপার স্পেশালিস্ট হাসপাতাল থেকে কলকাতায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে, বাকী আহত বিজেপি কর্মীরা এগরা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

ভারতীয় জনতা পার্টি কাঁথি সাংগঠনিক জেলার সভাপতি অনুপ চক্রবর্তী,এগরা বিধানসভার কনভেনর রাজকুমার সাহু,পটাশপুর-২ পূর্ব মন্ডলের সভাপতি সত‍্যজিৎ নন্দ গোস্বামী, মন্ডল যুব মোর্চার সভাপতি রামপদ বর্মণ,তাপস জানারা।

ঘটনাটা জানার পরে এগরা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে উপস্থিত হন। বিজেপির এই নেতারা আহত দলীয় কর্মীদের চিকিৎসা বিষয়ে হাসপাতালের সঙ্গে কথা বলেন এবং গুরুতর আহত ব‍্যক্তিগনকে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে পাঠানোর ব‍্যাপারে সাহায্য করেন।

জেলা সভাপতি অনুপ চক্রবর্তী এই জঘন‍্য ঘৃণ‍্য মধ‍্যযুগীয় বর্বর আক্রমনের তীব্র ভাষায় নিন্দা করেন,তিনি বলেন হার্মাদের দল হল তৃণমূল, ওরা বোমা মেরে,বন্দুক চালিয়ে সন্ত্রাস করে ভোটে জিততে চাইছে,কিন্তু জনগন জেগে গেছে,ফলে তাদের এই বর্বর সন্ত্রাসের জবাব জনগনই দেবে।

যদিও বিজেপির অভিযোগ মিথ্যা বলে দাবি করেছে তৃনমূল।পূর্ব মেদিনীপুর জেলা তৃনমূল কো অর্ডিনেটার মামুদ হোসেন বলেন নব্য ও পুরানো বিজেপি কর্মীদের মধ্যে লড়াই চলছে সারা জেলা জুড়ে ।আর সেই বিবাদ-লড়াইকেই তৃনমূলের উপর চাপিয়ে দিয়ে নিজেদের মুখ রক্ষার চেষ্টা করছে বিজেপি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *