Breaking News

নন্দীগ্রামে ধর্মীয় মঞ্চে বিজেপি নেতাদের পাশে,জল্পনা বাড়ালো দিব্যেন্দু

Post Views: website counter

দল বদলের জল্পনা চলাকালীন নন্দীগ্রামের একটি অনুষ্ঠানে, বিজেপি নেতৃত্বের সঙ্গে দেখা গেল তমলুকের তৃনমূল সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারীকে ।

কেন্দ্রীয় সরকারের প্রকল্পের উদ্বোধনে গত কয়েকদিন আগে পূর্ব মেদিনীপুরের শিল্প শহর হলদিয়ায় এসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সাংসদ হিসাবে আমন্ত্রিত তৃণমূল নেতা দিব্যেন্দু অধিকারী সেই অনুষ্ঠান মঞ্চে হাজির ছিলেন।তার পরেই এই ঘটনা দিব্যেন্দুর বিজেপিতে যোগদানের জল্পনা আরো বাড়ালো ।

যদিও এমন জল্পনা উড়িয়ে দিয়েছেন খোদ দিব্যেন্দু অধিকারী।তৃনমূল জেলা নেতৃত্ব অবশ্য ঘটনাটিকে গুরুত্ব সহকারে দেখছে।ইতিমধ্যেই ঘটনাটা রাজ্য নেতৃত্বকে জানিয়েছেন তাঁরা।উল্লেখ্য গত ১৯ ডিসেম্বর মেদিনীপুরের সভায় অমিত শাহের সভায় বিজেপির পতাকা তুলে নেন রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী।তারপর থেকেই অধিকারী পরিবারের বাকী জনপ্রতিনিধিদের বিজেপিতে যোগদানের জল্পনা বাড়তে থাকে।সেই জল্পনা আরো বাড়ে শুভেন্দু অধিকারীর ছোট ভাই কাঁথি পৌরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান সৌম্যেন্দু অধিকারী বিজেপিতে যোগদান করেছে।তারপরে বিজেপি নেতৃত্বের সাথে তমলুক লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ তথা শুভেন্দু অধিকারীর ভাই দিব্যেন্দুর এক মঞ্চে হাজির থাকার ঘটনা স্বাভাবিক ভাবেই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।বিজেপি’র নন্দীগ্রাম দক্ষিণ মণ্ডলের সভাপতি জয়দেব দাস বলেন এর পিছনে কোনও রাজনৈতিক উদ্দেশ্য নেই। নিছক ধর্মীয় অনুষ্ঠানে স্থানীয় সাংসদ হিসাবে দিব্যেন্দু অধিকারীকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল ।

নন্দীগ্রামে সোনাচুড়া পঞ্চায়েতের সাউদখালি ২৬২ নম্বর বুথে ‘বিশাল ধর্মীয় বৈষ্ণব সমাবেশে’ নামে একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠানে হাজির থাকার প্রসঙ্গে দিব্যেন্দু অধিকারী বলেন ধর্মীয় অনুষ্ঠানে গিয়েছিলাম।কোনও রাজনৈতিক মঞ্চও কারও সঙ্গে ভাগ করিনি। আর কোনও রাজনৈতিক বক্তৃতাও করিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *