Breaking News

তিন দশক পর কাশ্মীরের শ্রীনগরে খুললো শীতলনাথ মন্দির

Post Views: website counter

 

৩১ বছর পরে কাশ্মীরের শ্রীনগরে বসন্ত পঞ্চমীর দিন খুললো শীতলনাথ মন্দির।ভূ স্বর্গে ইসলামিক মৌলবাদ বৃদ্ধি পাওয়ায়আর হিন্দুদের কাশ্মীর ছেড়ে পলায়ন করার পরই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল এই মন্দির।

গত ১৯৯১ সালে এই মন্দিরটি জ্বালিয়ে দিয়েছিল দুষ্কৃতীরা। স্থানীয়দের থেকে জানা গেছে, তিন দশক আগে এখানে বসন্তি পঞ্চমীর দিনে মেলা বসত, অনেক দোকান আসত। কিন্তু ১৯৯১ সালে দুষ্কৃতীদের হামলার পর এই মন্দির বন্ধ হয়ে যায়।

শীতল নাথ মন্দিরে পুজোর উদ্যোক্তারা জানিয়েছেন , স্থানীয় মানুষেরাই ৩১ বছর ধরে বন্ধ পড়ে থাকা মন্দিরের পরিস্কার পরিচ্ছন্নতার কাজে অনেক সাহায্য করেছেন। এর আগে প্রত্যকে বছরে এখানে পুজো হত। বাবা শীতল নাথের জয়ন্তী বসন্ত পঞ্চমীর দিনই হয়, আর এই কারণে সেই দিনই এই মন্দির দীর্ঘ ৩১ বছর পর খুলে দেওয়া হয়েছে। কাশ্মীরি পণ্ডিতরা যখন এখানে থাকত, তখন এই মন্দিরে রোজই পুজো হত।

উদ্যোক্তারা বলেন তিন দশকের বেশী সময় ধরে বন্ধ পড়ে থাকা এই মন্দির খুলতে মুসলিমরাও সাহায্য করেছে অনেক। তাঁরা জানান, এখানে আশেপাশে অনেক হিন্দুরা ছিল, কিন্তু ইসলামিক সন্ত্রাসবাদের কারণে তাঁরা পালিয়ে যেতে বাধ্য হয়।উল্লেখ্য এই মন্দির জম্মু কাশ্মীরের রাজধানী শ্রীনগরের হব্বা কদল অঞ্চলে অবস্থিত।

শীতল নাথ মন্দির খোলার অন্যতম উদ্যোগী রবীন্দ্র রাজদান জানিয়েছেন আমরা আবার মন্দিরের গরিমা ফিরিয়ে আনতে চাই।মন্দিরে পুজো করতে যাওয়া এক ভক্ত বলেন, স্থানীয় মানুষ এই মন্দিরটি খোলার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। আবার অনেকেই এটিকে নতুন জম্মু কাশ্মীরের কামালও বলেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *