Breaking News

কট্টরবাদ বিরোধীতার নামে মুসলিম স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপে ফ্রান্সের

Post Views: website counter

 

চীনের পরে এবার ফ্রান্সও ইসলামিক কট্টরবাদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নিলো । মসজিদ আর মাদ্রাসায় সরকারি নজরদারি বাড়ানো সহ বহু বিবাহ এবং জোর করে বিয়ে করার বিরুদ্ধে কড়া আইন প্রনয়ন করলো ফ্রান্স সরকার।

গত বছর শিক্ষক স্যামুয়েল প্যাটি হত্যার পর ফ্রান্সে ইসলামিক কট্টরতার বিরুদ্ধে কড়া আইন আনার দাবি উঠেছিল। ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতি এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ অনেকবার বলেছিলেন যে, খুব শীঘ্রই কট্টরতার বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, গত বছরের অক্টোবর মাসে পড়ুয়াদের পয়গম্বর মহম্মদের কার্টুন দেখানোর অপরাধে এক হামলাকারী ধর্মীয় স্লোগান দিয়ে শিক্ষক স্যামুয়েল প্যাটির গলা কেটে দিয়েছিল। এই ঘটনা ঘাটেছিলদ ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিস থেকে মাত্র ৩ কিমি দুরে ।তারপর থেকেই ইসলামিক কট্টরবাদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ গ্রহনের দাবি উঠতে শুরু করে।

পূর্ব ঘোষনা মত এবার কঠোর আইন আনলো ফ্রান্স সরকার।আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম সুত্রে জানা যাচ্ছে ইসলামিক কট্টরবাদের বিরুদ্ধে আনা বিলের সমর্থনে ফ্রান্সের আইনসভায় ৩৪৭ টি ভোট পড়েছে আর বিপক্ষে পড়েছে ১৫১ টি ভোট।

যদিও ফ্রান্সে থাকা মুসলিমরা নতুন আইনের বিরোধীতা করেছে।সে দেশের মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষেরা মনে করছেন নতুন এই আইনের ফলে শুধু তাঁদের ধার্মিক স্বাধীনতা সীমিত করে দেওয়া হবে না, এতে তাঁদের নানা ভাবে হয়রান করা হবে। ফ্রান্সের বাসিন্দা মুসলিমরা নতুন আইনের বিরোধীতা করে জানিয়েছেন, দেশে আগে থেকেই সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য পর্যাপ্ত আইন আছে, তাই এই নতুন বিলের কোনও দরকার নেই।

যদিও মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষের সেই অভিযোগ প্রত্যাখান করে ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতি এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ বলেন, সম লিঙ্গতা আর ধর্মনিরপেক্ষতার মতো ফ্রান্সের ঐতিহ্যকে রক্ষা করার দরকার। আর এইজন্য দেশের স্বার্থে এই আইন আনা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *