Breaking News

আবাস যোজনায় দুর্নীতিঃটাকা নিয়েও সিঁড়ি করেনি ঠিকাদারঃজানালা দিয়ে ঘরে ঢুকে বাসিন্দারা !

Post Views: website counter

 

বাংলা আবাস যোজনায় উপোভোক্তাদের থেকে গড়ে ২৫ হাজার টাকা নিয়ে সেই টাকা ফেরৎ না দিয়ে আত্মৎসাত করার অভিযোগ উঠলো কাউন্সিলার প্রতিনিধির বিরুদ্ধে।চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি পূর্ব মেদিনীপুর জেলার কাঁথি পৌরসভার পূর্বতন বোর্ডের সময়কালের বলে অভিযোগ। এই প্রতারনা কান্ডে অভিযুক্তের শাস্তির দাবিতে সোমবার কাঁথি পৌরসভার নব নিযুক্ত প্রশাসক বোর্ডের কাছে অভিযোগ জানালো প্রচারিতরা।

কাঁথি পৌরসভার বর্তমান প্রশাসক বোর্ড সুত্রে জানা গেছে আবাস যোজনার বাড়ী নির্মাণ ও উপভোক্তা তালিকা নিয়ে অভিযোগের অন্ত নেই।তারই মধ্যে অন্যতম অভিযোগ ২ নং ওয়ার্ডের তৎকালীন কাউন্সিলরের প্রতিনিধি আবাস যোজনার বাড়ী পাইয়ে দেওয়ার নামে ৮০ জনের কাছ থেকে মাথাপিছু ২৫ হাজার টাকা করে ২০ লক্ষ টাকা সংগ্রহ করে নেন।বিগত ৪ বছর ধরে আবাস যোজনার বাড়ী বা জমাকৃত টাকা ও ফেরত পান নি।পরে অবশ্য ৪০ জনের টাকা ফেরত দেওয়া হয়। এখনো ৪০ জনের ১০ লক্ষ টাকা ফেরত দেওয়া হয় নি।

আজকে সেই প্রতারিত ৪০ জন নাগরিকেরা হয় আবাস যোজনার অনুদান প্রদান বা জমাকৃত টাকা ফেরতের দাবীতে কাঁথি পৌরসভার প্রশাসকমন্ডলী চেয়ারম্যান সিদ্ধার্থ মাইতি, সদস্য মামুদ হোসেন, সুবল মান্না, রত্নদীপ মান্না প্রমুখদের কাছে ডেপুটেশন ও স্মারকলিপি জমা দেন।ডেপুটেশনে নেতৃত্ব দেন সেক রাকেশ উদ্দিন, সেক আজিজুল দপ্তরী,বলাই গিরি, বিমান জানা প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

অপরদিকে ৯ নং ওয়ার্ডের হাতাবাড়ী মৌজার হরিজন পল্লীর বাসিন্দা সঞ্চিতা থাট অভিযোগ করেন আবাস যোজনার সমস্ত বরাদ্দ অর্থ নির্মাণের দায়িত্ব প্রাপ্ত ব্যক্তি ব্ল্যাঙ্ক চেকে সই করে সব টাকা তুলে নেওয়া হয়েছে। অথচ সিঁড়ি তৈরী না করে দেওয়ায় তাঁকে জানালা বেয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে উঠানামা করতে হয়।

জায়গার অভাবে বিমল থাট,উত্তম থাট,জীতেন থাট,ভানু থাট,সুভাষ থাট এই ৫ জনের আবাস যোজনার মোট বরাদ্দ ১৮.৪০ লক্ষ টাকা দিয়ে ক্লাস্টার বাড়ী তৈরী করা হয়েছে। পৌরসভার যোগসাজশে বেআইনী ভাবে এজেন্সি নিয়োগ করে নিম্নমানের কাজ করা হয়েছে। আবাস যোজনার সরকারী নিয়মনীতি না মেনে কাটমানির বিনিময়ে কাজ করতে গিয়ে দুর্নীতি ও স্বজনপোষণের পাহাড় গড়ে তোলা হয়েছিল।

কাঁথি পৌরসভার প্রশাসকমন্ডলীর সদস্য মামুদ হোসেন জানান বিগত পৌরবোর্ডের এই সব দুর্নীতি হিমশৈলের চূড়া মাত্র।দুর্নীতি বিরোধী অভিযান চালিয়ে যেতে বর্তমান পৌরসভার প্রশাসকমন্ডলী দৃঢ়প্রতিজ্ঞ বলে জানান মামুদ হোসেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *