Breaking News

সাড়ে পাঁচ বছরের শিশু কন্যাকে ধর্ষন করে,দেহ পুকুরে পুঁতলো যুবক!

Post Views: website counter

 

এক সাড়ে পাঁচ বছরে শিশুকন্যাকে ধর্ষণ,তারপরে প্রমাণ লোপাটের জন্য পুকুরের ধারে পাঁকে পুঁতে দেওয়ার অভিযোগ উঠল এক প্রতিবেশী যুবকের বিরুদ্ধে। ঘটনাটা জানাজানি হতেই উত্তেজিত হয়ে স্থানীয় বাসিন্দারা অভিযুক্ত যুবককে ধরে গণধোলাই দিতে শুরু করে।

চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় পটাশপুর থানার অমরপুর গ্রামে। এলাকার বয়স্ক মানুষেরা উত্তেজিত স্থানীয় বাসিন্দাদের বুঝিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে।ছুটে আসে পুলিশ।তাঁরা অভিযুক্ত যুবক শুভেন্দু ঘটম সহ বাবা ও মাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। মৃত শিশুকন্যার নাম অন্নপূর্ণা ঘটম (৫)।

জানা গেছে, শনিবার সকালে প্রতিবেশী সাড়ে পাঁচ বছরের এক শিশু কন্যাকে খাবারের প্রলোভন দেখিয়ে বাড়িতে ডেকে নিয়ে যায় এই যুবক।সেই সময় তার বাড়িতে কেউ ছিলনা।অভিযোগ বাড়িতে নিয়ে গিয়ে এই নাবালিকা ধর্ষন অভিযুক্ত শুভেন্দু। আরো অভিযোগ মেয়েটি যন্ত্রনায় চিৎকার শুরু করায় তাকে শ্বাসরোধ করে খুন করে নরাধম যুবক।

পরে এই সাড়ে পাঁচ বছরের প্রমাণ লোপাটের জন্য শিশুকন্যার মৃতদেহ পুকুরের পুতে দেয় অভিযুক্ত ধর্ষক যুবক।অভিযুক্ত যুবকের শাস্তির দাবিতে সোচ্চার হয় এলাকার বাসিন্দারা। ঘটনার খবর পেয়ে হাজির হয় পটাশপুর থানার পুলিশ।

এলাকাবাসীরা ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন। কোনরকমে এলাকাবাসীদের বুঝিয়ে ওই যুবককে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। পাশাপাশি সাড়ে পাঁচ বছরের শিশুর মৃতদেহটি উদ্ধার করে নিয়ে আসেন পুলিশ। ধর্ষণের পর খুন করেছে বলে এলাকাবাসী থেকে শিশুকন্যার পরিবারের অভিযোগ। পুলিশ অভিযুক্ত যুবক শুভেন্দু ঘটম, বাবা কমল ঘটম ও মা কৃষ্ণা খটম আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *