Breaking News

কাঁথি পৌরসভার রাজস্ব আদায়ে গরমিলের অভিযোগ

Post Views: website counter

 

পূর্ব মেদিনীপুর জেলার কাঁথি পৌরসভার কর ও রাজস্ব আদায় দপ্তরের ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক ও কর্মীদের নিয়ে পৌরসভার প্রশাসকমন্ডলীর গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।বৈঠকে পৌরসভার প্রশাসকমন্ডলীর চেয়ারম্যান সিদ্ধার্থ মাইতি, সদস্য মামুদ হোসেন, সুবল মান্না, রত্নদীপ মান্না, সেক হাবিবুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

পৌর প্রশাসকমন্ডলীর সদস্য মামুদ হোসেন জানান বিগত বোর্ডের সময় এক কর আদায়কারী হোল্ডিং ট্যাক্সের ৭ লক্ষ ৭৩ হাজার টাকা পৌরসভার তহবিলে জমা না দিয়ে আত্মসাৎ করেন।কর আদায়ের মূল রসিদে প্রকৃত অঙ্ক বসানো হলেও কার্বন কপিতে কম টাকা দেখিয়ে দিনের পর পর দিন বিপুল পরিমাণের টাকা তছনছের অভিযোগ দীর্ঘ দিন ধরে উঠে আসছে।তছরূপ কারী এই কর্মী পরে ৪ লক্ষ টাকা পৌরসভায় জমা দিলেও ৩ লক্ষ টাকা ৭৩ হাজার টাকা আজও জমা করেনি।

মামুদ বাবুর অভিযোগ কোন এক অজ্ঞাত কারনে আত্মসাৎকারী কর্মীর বিরুদ্ধে থানায় কোন অভিযোগ করা হয় নি।বলেন দুর্নীতির আরো উদাহরন আছে ।সেই বিষয়ে বলেন কাঁথি পৌরসভার সুপার মার্কেটে ২০২০ সালের অক্টোবর মাসে রাজস্ব আদায়ের পরিমাণ ছিল ১১,৯০,৮১৫ টাকা, নভেম্বরে কমে হয় ৬,৪৬,৭৩৯ টাকা,আবার ডিসেম্বরে বেড়ে হয় ৮,১৫,৪৭৯ টাকা।অপরদিকে সেন্ট্রাল বাস স্ট্যান্ড থেকে পৌরসভার আয় হয় সেপ্টেম্বর মাসে ৩,২৮,৬৭৪ টাকা, অক্টোবরে ২,৭৫,৪২৯ টাকা, নভেম্বরে ২,৫৪,৬২১ টাকা এবং ডিসেম্বরে ২,৫০,৩৩৩ টাকা।

মামুদ বাবুর দাবি বিভিন্ন মাসে রাজস্ব আদায়ের এত কম-বেশি কেন হয়েছে তার তদন্ত করে দেখা হবে।একই ভাবে বিভিন্ন দপ্তরের আয়-ব্যয়ের হিসাব নিয়ে আগামী ২৭ জানুয়ারী প্রশাসকমন্ডলীর গুরুত্বপূর্ণ সভায় বিশদ আলোচনা হবে বলে জানান প্রশাসকমন্ডলী র সদস্য মামুদ হোসেন। প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্হা নেওয়ার কথা জানান মামুদ হোসেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *