Breaking News

শুভেন্দুর সভার আগেই রনক্ষেত্র খেজুরী-মাজনা

Post Views: website counter

 

খেজুরির হেড়িয়ায় শুভেন্দু অধিকারীর জনসভায় যোগ দিতে আসার পথে আক্রান্ত হলেন বিজেপি কর্মীরা।সোমবার নন্দীগ্রামের তেখালীতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাল্টা মঙ্গলবার শুভেন্দুর সভাতে যোগদিতে যাওয়ারজন্যে খেজুরি থেকে মিছিল করে বিজেপি কর্মীরা হেঁড়িয়ায় দিকে যাচ্ছিলেন। আচমকা সেই সময় তাঁদের উপর তৃণমূলের লোকেরা হামলা করে বলে অভিযোগ। বিষয়টি কেন্দ্র করে নিমিষে উত্তেজনা ছড়ায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে বহু চেষ্টার পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ।এই হামলায় তাদের  দলের বেশ কয়েক জন কর্মী আহত বলে দাবি বিজেপি-র। অভিযোগের তির তৃণমূল সমর্থকদের দিকে। তবে রাজ্যের শাসকদলের পক্ষ থেকে অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে।

খেজুরির পাশাপাশি কাঁথি ১ ব্লকের মাজনাতেও গাড়ি ভাঙচুর করে বিজেপি কর্মীদের উপর আক্রমণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ। এর প্রতিবাদে সেখানে পথ অবরোধ করে বিজেপি কর্মী সমর্থকেরা।খবর পেয়ে বিশাল পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে ছুটে যায়।বিজেপির অভিযোগ, খেজুরির মালদাতে তাদের কর্মী-সমর্থকদের লক্ষ্য করে বোমা ও ইট ছোঁড়ে তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা। সেই সঙ্গে হেঁড়িয়াতে শুভেন্দু অধিকারীর জনসভায় আসার পথে বিজেপি সমর্থকদের বাধা দেওয়া হয় ।

বারাতলায় আক্রান্ত হওয়ার পরেই পাল্টা প্রতিরোধে নামেন বিজেপি কর্মী সমর্থকরাও। লাঠিসোটা নিয়ে তাঁরা হামলাকারীদের তাড়া করেন। ফাঁকা ধান জমি ধরে বিজেপি কর্মীরা ছুটে যান গ্রামের ভেতরে। এর জেরে আতংকে বাড়ি ছেড়ে পালাতে শুরু করেন মহিলা-পুরুষেরা। সেই সময় ঘটনাস্থলে ছুটে আসে খেজুরি থানার পুলিশ কর্মী ।

এই ঘটনার জন্যে বিজেপি তৃনমূলকে দায়ি করলেও তা অস্বীকার করেছে শাসক দল ।তৃনমুলের জেলা কমিটির সদস্য মামুদ হোসেন বলেন, ‘‘এই হামলায় তাঁদের দলের কেউ জড়িত নয়। বিজেপি-র নব্য ও পুরনোদের মধ্যেই ঝামেলা। এর সঙ্গে তৃণমূলের কোনও সম্পর্ক নেই।’’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *