Breaking News

অমানবিক! বন দফতরের উদাসীনতায় পটাশপুরে মৃত্যু ডলফিনের

Post Views: website counter

চরম অমানবিকতার নজির গড়লো পূর্ব মেদিনীপুর। একটি জখম সামুদ্রিক ডলফিন গলায় দড়ি দিয়ে বেঁধে দীর্ঘক্ষন খালের জলে ফেলে রাখা হলো। আর সেটা জেনেও জলজ এই প্রানীটিকে উদ্ধারে এলোনা বন দফতর। যার জেরে মৃত্যু হল ডলফিনটির !

নক্কারজনক ঘটনাটা ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুরের পটাশপুরে। অসেচনতার নজিরে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে পশু প্রেমীরা।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, পটাশপুর থানার উত্তর চৌমুখ গ্রামের বামনবাড় এলাকার একটি খালে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কোন হবে একটি সামগ্রিক ডলফিন চলে আসে। গ্রামবাসীরা ভাবে হাঙর জাতীয় কিছু চলে এসেছে। এই ভেবে ডলফিনটিকে খালের পাশে দড়ি দিয়ে বেঁধে রাখা হয়। সারারাত দড়ি বাঁধা অবস্থায় থাকার ফলে এবং কোনরকম চিকিৎসা না হওয়ার ফলে শুক্রবার সকালে মৃত্যু হয় ডলফিনটির।

গ্রামবাসীদের অভিযোগ, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা থেকে একাধিকবার বনদপ্তর এর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তাদের পক্ষ থেকে কোনরকম সদুত্তর পাওয়া যায়নি। বনদপ্তর এর গাফিলতির ফলেই এই ঘটনা ঘটেছে। বনদপ্তর সূত্রে অবশ্য দাবি করা হয়েছে, ডলফিন ধরা পড়ার বিষয়টি তাদের জানানো হয়নি বৃহস্পতিবার। শুক্রবার খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই শুক্রবার সকালে তারা ঘটনাস্থলে যায়। কিভাবে সেটির আঘাত লাগল তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে জাহাজের সঙ্গে ধাক্কা লাগার ফলে আঘাত পেয়েছিল ডলফিনটি। ঘটনার তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। গ্রামবাসীদের সঙ্গে কথা বলা হবে।

তবে পশু প্রেমীরা এই ঘটনার নিন্দার পাশাপাশি বন দফতরের উদাসীন কর্মীদের বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা গ্রহনের দাবি তুলেছেন।উল্লেখ এর আগেও গত বছর পূর্ব মেদিনীপুরে খালের জলে ঢুকে পড়ে মৃত্যু হয়েছিলো একটি ডলফিনের

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *