Breaking News

চলচ্চিত্র উৎসবে রবীন্দ্র সদনে দেখানো হলো বিশেষ ডকুমেন্টি “ভূবনময় ভানু”

Post Views: website counter

ইন্দ্রজিৎ আইচ

তার মৃত্যুর ১০০ বছর পরেও মানুষ তাঁকে ভোলেনি। তিনি আমার আপনার প্রিয় অভিনেতা, নাট্যকার, নাট্য পরিচালক, কৌতুকের রাজা
“ভানু বন্দ্যোপাধ্যায়”।

যিনি আজও অমর হয়ে আছেন এই বাংলার সাংস্কৃতিক বিশ্ব চলচ্চিত্রের শাখা প্রশাখায়। ২৬ তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে তাঁকে স্বরণ করে রবীন্দ্র সদনে দেখানো হলো মাত্র তিরিশ মিনিটের এক অসাধারণ ডাকুমেন্টি “ভুবনময় ভানু”। যার পুরোপুরি ভাবনা ও পরিকল্পনা তার কন্যা শর্মিষ্ঠা চক্রবর্তী (বাবলি)। ইনি এখন থাকেন লস এঞ্জেলস এ।

ভানু বন্দ্যোপাধ্যায় কে নিয়ে এই ডাকুমেন্টি তে স্মৃতি চারণ করেছেন অভিনেতা শুভাশিস মুখার্জী, গায়ক ও অভিনেতা সাহেব চট্টোপাধ্যায়, শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়, অভিনেত্রী ও পরিচালক অপর্ণা সেন, ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত, লিলি চক্রবর্তী,প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, রঞ্জিত মল্লিক,খরাজ মুখার্জী, অম্বরিশ ভট্টাচার্য, জনপ্রিয় গায়ক সৈকত মিত্র, সাংবাদিক চন্ডী মুখার্জী সহ তার পুত্র গৌতম বন্দ্যোপাধ্যায়, কন্যা শর্মিষ্ঠা চক্রবর্তী।

তাদের মতে ভানু বন্দ্যোপাধ্যায় যেমন একাধারে ছিলেন অভিনেতা তেমন ছিলেন কৌতুক শিল্পী।
আবার ছিলেন থিয়েটার এর মানুষ কে হাসানোর রাজা। ব্যাক্তিগত ভাবে অনেক বড় মনের ও বড় মাপের মানুষ ছিলেন ভানু। বহু শিল্পী কে তিনি ব্যাক্তিগত ভাবে নানা সাহায্য ও উপকার করেছেন।
ছিলেন স্বাধীনতা সংগ্রামীর দের ভক্ত। অভিনয়ের পাশাপাশি পরাধীন ভারতবর্ষের তিনি ছিলেন এক জন গোপন স্বাধীনতা সংগ্রামী। এই কথাটা গোপন থেকে গেছে, তার ছেলে মেয়েরা এই ডাকুমেন্টি তে সেই কথা বলেছেন।

নন্দনে এই ডাকুমেন্টি সম্পর্কে এক সাংবাদিক সম্মেলনে অভিনেতা শুভাশিস মুখার্জী বলেন ভানু বন্দ্যোপাধ্যায় কে চিরকাল কৌতুক অভিনেতা হিসাবে মনে রাখবে মানুষ। যেমন সিরিয়াস অভিনয় করেছেন তেমন হাসির করেছেন। সকলের সাথে খুব সহজে মিশতে পারতেন শুধুতাই নয় নতুনদের খুব সাহায্য করতেন অভিনয়ে, যেটা এখন দেখা যায়না।

এই ডাকুমেন্টি টি তৈরি হয়েছে ২০২০ লক ডাউন এর সময়,সকলেই ভার্চুয়াল বক্তব্য জানিয়েছেন। সেই বক্তব্য গুলো সংমিলিত ভাবে এই ডাকুমেন্টি তৈরি করেছেন শর্মিষ্ঠা। এই করোনার কারণে তিনি এবার এই উৎসবে আসতে পারেননি বিদেশ থেকে।কিন্তু ভার্চুয়াল ই এই ব্যাপার এ এই ডাকুমেন্টি র পরিচালক শর্মিষ্ঠা চক্রবর্তী(বাবলি) জানালেন আমায় এই ডাকুমেন্টি টা বানাতে খুব সাহায্য করেছেন অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত ও অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়।

সহযোগিতায় ছিলেন দীপঙ্কর চট্টোপাধ্যায়, কৃষ ঘোষ, শর্মিষ্ঠা রায়চৌধুরী,অমিত চট্টোপাধ্যায়। সাংবাদিক সম্মেলনে সৈকত মিত্র, সাহেব চট্টোপাধ্যায় সহ বহু বিশিষ্ট মানুষ উপস্থিত ছিলেন। এনারা ও ভানু বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পর্কে আলোকপাত করেন।সব মিলিয়ে ভানু বন্দ্যোপাধ্যায় এর জন্ম শতবর্ষ উপলক্ষে এই ডাকুমেন্টি ” ভুবনময় ভানু” সকল সিনেমামোদি দর্শক দের বিশেষ ভাবে নজর করেছে এই টুকু বলা যায়।এর জন্য রাজ্য সরকার কে ও কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব কমিটি কে সাধুবাদ জানাতেই হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *