Breaking News

পরিবেশের ক্ষতি করে হলদিয়া সুন্দরী সানসেট ভিউ পয়েন্টে বনভোজন

Post Views: website counter

 

পরিবেশের কথা মাথায় না রেখে,সরকারী নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে হলদিয়া সুন্দরী সানসেট ভিউ পয়েন্ট রীতিমত ডিজে বক্স বাজিয়ে নতুন বছরের প্রথম দিনে চড়ুইভাতি সারলেন পর্যটকেরা।যার জেরে ক্ষুব্ধ পরিবেশ কর্মীরা।

পূর্ব মেদিনীপুর জেলার শিল্প শহর হলদিয়ার সুন্দরী সানসেট ভিউ পয়েন্ট পর্যটকদের জন্য সেজে উঠেছে নতুনভাবে। হলদিয়া প্রশাসন হলদিয়া পৌরসভা এবং স্থানীয় কাউন্সিল এর সহযোগিতায় হলদিয়া সানসেট ভিউ পয়েন্ট পর্যটকদের জন্যে সেজে উঠেছে। এর মধ্যেই আধুনিকের ছোঁয়া লাগিয়ে বনদপ্তর বিভিন্ন ধরনের গাছ লাগিয়েছেন। প্রায় কয়েক লক্ষ টাকার।

জানা গেছে সুন্দরবনের আদলেই তৈরি হয়েছে সান ভিউ পয়েন্ট। পর্যটকদের কথায় বর্তমানে বালুঘাটা যেন নিউ সুন্দরবন। ভ্রমণপিপাসুদের জন্য সকাল থেকে বিভিন্ন রাজ্য এবং স্থানীয় বহু লোকজনের সমাগম। নজরদারি করছেন হলদিয়া ভবানীপুর থানার পুলিশ সিভিক পুলিশ এবং পৌরসভার স্থানীয় কাউন্সিলর এবং ওয়ার্ড কমিটির সদস্যরা।

তবে এই পর্যটন কেন্দ্রের ভেতরে হলদিয়া পৌরসভা মাইক বাজানো নিষিদ্ধ করলেও প্রশাসনের উদাসীনতায় জন্য বনের ভিতর চলছে ডিজে মাইক বাজানো। বনভোজনের নাম করে কিছু মানুষ মদ্যপ অবস্থায় দেখা গিয়েছে। হলদিয়ার এক বিজ্ঞান কর্মী বললেন আমাদের এই সানসেট ভিউ পয়েন্টের জঙ্গলে দেশ-বিদেশের বহু পাখি আসে এই সময়ে। কিন্তু ডিজে মাইক বাজানোর জন্য পাখিগুলো ভয়ে পালিয়ে যায় আমরা এর আগে পাখি বাসা বাঁধে দিয়েছিলাম ।যাতে পাখির নিরাপদে থাকতে পারে

কিন্তু ২০ মে আমফান ঘূর্ণিঝড় সব শেষ হয়ে গেছে ।এখন পড়ে রয়েছে হাজারে হাজারে ডেড বডি মত গাছগুলো। পৌরসভা ও বনদপ্তর এগুলোর কোনো ব্যবস্থাই এখানো নেয়নি। উল্টে বন ভোজনের নামে ডিজে বক্স বাজানোর জন্যে অনুমতি দিয়েছে । আজ বছরের প্রথম দিন এলাকার মানুষজন এসেছেন পিকনিক করার জন্য। তার জন্য হলদিয়া পৌরসভা ভবানীপুর থানা এবং স্থানীয় কাউন্সিলর সহযোগিতার মধ্য দিয়ে বনভোজন চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *