Breaking News

কাঁথির পৌর প্রশাসক থেকে অপসারিত সৌম্যেন্দু অধিকারী!নির্দেশিকা নিয়ে ধোঁয়াশা

Post Views: website counter

 

তাঁর বাড়িতে যে তিন নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি আছেন, তাঁরাও ‘পদ্ম ফোটাবেন’। মঙ্গলবার উত্তর ২৪ পরগনার খড়দহের পথসভা থেকে ঘোষনা করেছিলেন  বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। সেই ঘোষনার কয়েক ঘন্টার মধ্যেই পূর্ব মেদিনীপুর জেলার কাঁথি পৌরসভার প্রশাসক পদ থেকে সরানো হল তাঁর ছোট ভাই সৌম্যেন্দু অধিকারীকে।যদিও খোদ সৌম্যেন্দু অধিকারী কিংবা পূর্ব মেদিনীপুর জেলা প্রশাসনের কাছে এই বিষয়ে কোন নির্দেশিকা নেই ।

রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহন,সেচ ও জলসম্পদ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর বাবা কাঁথির সাংসদ শিশির অধিকারী, ভাই তমলুকের সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারী এবং অপর এক ভাই কাঁথি পুরসভার প্রাক্তন প্রশাসক সৌম্যেন্দু অধিকারী তৃণমূলেই রয়েছেন। যদিও আপাতদৃষ্টিতে তৃণমূলের সঙ্গে তাঁদের দূরত্ব প্রতিদিনই বাড়ছে। দলের কোনও সভা-সমিতিতেই তাঁদের দেখা যাচ্ছে না।

প্রশাসকের পদ থেকে অপসারন নিয়ে সৌম্যেন্দু অধিকারী বলেন ‘আজ সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত পুরসভার অফিসে ছিলাম। ওই নির্দেশ সংবলিত কোনও ই-মেল বা ফোন রাত পর্যন্ত পাননি তিনি।তবে বাড়িতে টিভি-তে আমাকে অপসারিত করার খবর দেখতে পাই।অপসারণের খবর দেখে তিনি ‘হতবাক’ দাবি সৌম্যেন্দুর ।

তৃণমূল সূত্রে খবর, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কাঁথি পুরসভার প্রশাসকের পদ থেকে অপসারিত করা হয়েছে দলের পূর্ব মেদিনীপুর জেলা কমিটির সভাপতি শিশির অধিকারীর কনিষ্ঠ পুত্র সৌম্যেন্দুকে। বিধিপূর্বক ওই নির্দেশ দিয়েছে রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়ন দফতর। যে দফতরের মন্ত্রী ফিরহাদ (ববি) হাকিম।

তৃণমূলের পূর্ব মেদিনীপুর জেলা কমিটির সদস্য তথা কাঁথি দেশপ্রাণ পঞ্চায়েত সমিতির সহ-সভাপতি তরুণ জানার অভিযোগ, ‘‘রাজ্য সরকারের মনোনীত পুর প্রশাসকের পদে থেকে বিজেপি-র হয়ে কাজ করছিলেন সৌম্যেন্দু। তৃণমূলের সমর্থন নিয়ে দলেরই বিরোধিতা করবেন— এটা চলতে পারে না।

তৃনমূল দাবি করলেও রাত অবধি জেলা শাসক বিভু গোয়েল কিংবা কাঁথির মহকুমা শাসক আদিত্য মোহন হিরানি কাছে সৌম্যেন্দু অধিকারীকে অপসারন নিয়ে কোন নির্দেশ নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *