Breaking News

মহিলা কর্মীকে ধর্ষন করে গ্রেফতার চ্যানেল-ই’র কর্নধার

Post Views: website counter

নিজের দোকানের এক মহিলা কর্মীকে দিনের পর দিন ধর্ষণ করে গ্রেফতার হল কাঁথি শহরের এক মোবাইল দোকানের মালিক।অভিযোগ শুধু ধর্ষন নয়,সেই সকল আপত্তিকর কান্ডের ভিডিও বানিয়ে ওই মহিলাকে ব্ল্যাক মেলিং করতো অভিযুক্ত ব্যাবসায়ী।

অভিযোগ পাওয়ার পরে কাঁথি শহরের এই মোবাইল দোকানের মালিক নীলেশ কান্তি পাঁজাকে গ্রেফতার করলো কাঁথি থানার পুলিশ। কাঁথি মহকুমা আদালত মঙ্গলবার অভিযুক্ত মোবাইল দোকানদারের জামিন নাকচ করেন বিচারক।ধৃতকে ১৪ দিনের জেল হাজতে পাঠিয়েছে আদালত।

নীলেশ কান্তি পাঁজা কাঁথি শহরের শ্রীরূপা রোডের
চ্যানেল-ই নামের এক মোবাইল দোকানের কর্নধার।জানা গেছে, গত ১ সেপ্টেম্বর কাঁথি শহরে চ্যানেল- ই মোবাইল দোকানের কর্মজীবন শুরু করেন ওই যুবতী। তবে কিছুদিন পরে মহিলাকে দোকানে আসতে না বলে নীলেশ ।মহিলা কারন জানতে চাওয় ,তাই দেখা করতে চায় ।

সেই সময় অভিযুক্ত ব্যাবসায়ী তাঁকে কাঁথি শহরের কিশোরনগর এলাকায় তার ভাড়া বাড়িতে আসতে বলে,কারন তিনি অসুস্থ, দোকানের যেতে পারবেন না। নীলেশ বাবুর কথা মতো যুবতী ভাড়াবাড়িতে হাজির হয়। সেখানে ঠাণ্ডা পানীয়তে মাদক মিশিয়ে তাকে ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ ওই মহিলা কর্মীর। তাঁর আরো অভিযোগ এই পুরো ঘটনার আপত্তিকর ভিডিও তুলে রাখে অভিযুক্ত দোকানের মালিক।

মহিলা পুলিশকে আরো জানিয়েছেন সেই আপত্তিকর ভিডিও ফুটেজ সোশ্যাল মিডিয়ায় ছেড়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে দিনের পর দিন ব্ল্যাক মেল করা হয় তাকে। নানান আছিলায় বহুবার বাড়িতে ডেকে শারীরিক সম্পর্ক তৈরী করে নীলেশ।পরে ভিডিও ডিলিট করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ৬০ হাজার টাকা সেই মহিলার কাছ থেকে নেয় অভিযুক্ত ব্যাবসায়ী।

কয়েকবার শারিরীক সম্পর্ক করে ও টাকা নিয়েও ভিডিও না মোছায়,মহিলা প্রতিবাদ করায় তাঁকে বেধড়ক মারধর করা হয় বলে যুবতীর অভিযোগ।তাই বাধ্য হয়ে কাঁথি থানার পুলিশের দ্বারস্থ হয় ওই মহিলা । মহিলার অভিযোগের ভিত্তিতে কাঁথি থানার পুলিশ অভিযুক্ত মোবাইল দোকানের মালিককে গ্রেফতার করে।ঘটনাটিকে ঘিরে শহর জুড়ে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *