Breaking News

Breaking!! কাঁথিতে নাম না করে শুভেন্দু অধিকারীকে আক্রমন ব্রাত্য বসুরঃতৃনমূলে সকলে মমতার অনুগামী

Post Views: website counter

 

এবার নন্দীগ্রামের বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারীর গড়ে দাঁড়িয়ে তাঁর অনুগামীদের নাম না করে আক্রমন করলেন রাজ্যের মন্ত্রী ব্রাত্য বসু।সেই সাথে বিজেপির রাজ্য সভাপতি সাংসদ দিলীপ ঘোষকেও তীব্র আক্রমন করলেন তিনি।রবিবার পূর্ব মেদিনীপুর জেলার দেশপ্রান ব্লকে তৃনমূলের কর্মী সভায় নিজের ভাষন এভাবেই শুরু করেন রাজ্যের মন্ত্রী ব্রাত্য বসু।

এই সভায় ব্রাত্য বসু ছাড়াও প্রাক্তন বিধায়ক নির্বেদ রায়,দেশপ্রান ব্লকের অন্যতম তৃনমূল নেতা তরুন জানা সহ অন্যান্য তৃনমূল নেতৃত্বরা উপস্থিত ছিলেন।সভায় দেশপ্রান ব্লকের বিভিন্ন এলাকা থেকে ৬৫০ জন বিজেপি কর্মী তাঁদের দল ছেড়ে তৃনমূলে যোগদান করেন।

নিজের ভাষনের শুরুতেই শুভেন্দু অধিকারীর নাম না নিয়ে ব্রাত্য বসু বলেন তৃনমূলে আমরা একজনেরই অনুগামী,আর তিনি হলেন মমতা ব্যানার্জী। ব্রাত্য বসু বলেন আম্বানী-আদানীরা দেশ চালাচ্ছে।বিজেপি সারা দেশকে গেরুয়া রংয়ে ঢাকতে চাইছে।তার জন্যে সারা দেশ জুড়ে ঘোড়া কেনাবেচা শুরু করেছে।তবে সেই প্রক্রিয়া গঙ্গার পাড়ে এসে আটকে গেছে।মন্ত্রী বলেন আমাদের দূর্গা মমতা ব্যানার্জীর প্রতিরোধে
বিজেপিকে পিছু হটতে হয়েছে।তাই নানা চক্রান্ত করে চলেছে।তবে আপনারা পাশে থাকায় মমতা ব্যানার্জী যে প্রতিরোধ গড়ে তুলেছে তাতে বিজেপির রথের চাকা আটকে গেছে।দেখবেন একদিন হয়তো এমন কোন মঞ্চে এসে মেদিনীপুরের সাংসদ দিলীপ ঘোষ জোড়া ফুলের পতাকা নজের হাতে তুলে নেবে।

বলেন ওরা সর্দার বল্লভ ভাই প্যাটেলের মুর্তি গড়লেও নিজেদের দলের প্রান পুরুষ শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জীর মুর্তি গড়েনা।ওদের দ্বিচারিতা ধরা পড়ে গেছে।বিজেপি নিজেদের হিন্দু ধর্মের ধারক ও বাহক বলে প্রচার করলেও রাম মন্দিরে বাংলার মা দূর্গা,হরিচাঁচ ঠাকুরদের স্থান হয়না।এরা আসলে শিল্পপতিদের কাছে বিক্রী।এরা শিল্পায়নের নাম জমি দখলের রাজনীতি করে।কিন্তু বাংলায় মমতা ব্যানার্জী থাকায় সম্ভব হচ্ছেনা।তাই নানা চক্রান্ত করছে।এর পরে ফের শুভেন্দু অধিকারীর নাম না নিয়ে ব্রাত্য বসু বলেন
মমতার এই মানুষকে নিয়েই আন্দোলন আমাদের তাঁর অনুগামী বানিয়েছে।তৃনমুলে আমরা সকলেই মমতার অনুগামী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *