Breaking News

বিদ্যালয়ের নির্মান কাজে নিম্নমানের সামগ্রী:প্রতিবাদ করে তৃনমূল ব্লক সভাপতির হাতে প্রহৃত যুবক !

Post Views: website counter

বিদ্যালয়ের নির্মান কাজে নিম্ন মানের সামগ্রী ব্যাবহার করার প্রতিবাদ করায় এক প্রতিবাদীকে লাঠি পেটা করছে ঠিকাদার!

মারধরের ভাইরাল ভিডিও ঘিরে বিতর্ক দানা বেঁধেছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার পটাশপুর ১ নম্বর ব্লকে।বিতর্ক ব্যাপক আকার ধারন করার কারন প্রথম অন্যায়ের প্রতিবাদ করে প্রকাশ্যে মার খেতে হচ্ছে।দ্বিতীয়ত্ব অভিযুক্ত ঠিকাদার পটাশপুর – ১ ব্লক তৃণমূল সভাপতি পীযূষ পন্ডা ।

এই ভাইরাল ভিডিও অনুযায়ী দেখা যাচ্ছে পীযূষ পন্ডা তার গ্রামেরই এক গ্রামবাসীর সঙ্গে একটি স্থানীয় স্কুলের বিল্ডিং তৈরি নিয়ে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন । তারপরেই উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় এবং পিযুষ পন্ডা ডান্ডা হাতে ওই ব্যক্তিকে ব্যাপকহারে মারধর করেন । এই ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পরেই শুরু হয় বিতর্ক ।

বিজেপির কাঁথি জেলা সাংগঠনিক সভাপতি অনুপ চক্রবর্তী বলেন স্থানীয় একটি স্কুলে কাজ করছেন ওই এলাকার তৃণমূলের ব্লক সভাপতি । অত্যন্ত নিম্নমানের কাজ করায় তার প্রতিবাদ করে এক গ্রামবাসী । তখন দেখা যায় পীযূষ পন্ডা তাকে ব্যাপক হারে প্রকাশ্যে মারধর করেন ।বিজেপি নেতার অভিযোগ এই রাজ্যে একটি কাটমানি খোর সরকার চলছে । এরা বর্বরতার সীমা অতিক্রম করেছে । সাধারণ মানুষকে অত্যাচার করার এদের রক্তের দোষ এসে গেছে । এই ব্যাপারে আমরা সাবধান করে দিচ্ছি না হলে জনগণই আপনাদেরকে কিছু বুঝিয়ে দেবে ।

যদিও অভিযুক্ত ঠিকাদার ওরফে পটাশপুর – ১ ব্লক তৃণমূল সভাপতি পীযূষ পন্ডা দাবি ওই ব্যক্তি মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন । সেই ব্যাক্তি মদ্যপ অবস্থায় এলাকার পরিবেশ নষ্ট করছিলেন । আমি নিজে কোনদিন মদ খাইনি আর তা বরদাস্ত করিনা। তাই লাঠি উঁচিয়ে ওকে ওখান থেকে তাড়িয়ে দিয়েছিলাম । আর সেই ভিডিও কে বা কারা ফেসবুকে দিয়ে তাকে বদনাম করার চেষ্টা করছেন । এই ব্যাপারে তিনি আইনের দ্বারস্থ হবেন ।

যদিও এই বিষয়ে দুই পক্ষ কেউই স্থানীয় থানায় অভিযোগ করেছেন কিনা জানা যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *