Breaking News

Breaking !! নন্দীগ্রামে তৃনমূলে ভাঙ্গন:পঞ্চায়েত প্রধান সহ এক ঝাঁক নেতৃত্ব বিজেপিতে

Post Views: website counter

 

রাজ্যে জমি রক্ষার আন্দোলনের অন্যতম মুখ নন্দীগ্রাম দিয়েই শাসক দল তৃনমূলের গড় বলে পরিচিত পূর্ব মেদিনীপুরে ভাঙ্গন ধরালো বিজেপি। নন্দীগ্রামের এক পঞ্চায়েতের প্রধান-উপ প্রধান সহ আট জন সদস্য যোগ দিলেন বিজেপিতে।এই খবর জানার পরেই আলোড়ন পড়েছে রাজ্য রাজনীতিতে ।যদিও পূর্ব মেদিনীপুর জেলা তৃনমূল নেতৃত্ব এখনো এই বিষয়ে কিছু জানেনা বলে দাবি করেছে।

বিধানসভা নির্বাচন যত সামনে এগিয়ে আসছে নিজেদের শক্তিবৃদ্ধি করছে বিজেপি।শাসক দলের গড় পূর্ব মেদিনীপুরও সেই তালিকা থেকে বাদ গেলনা। বিজেপিতে যোগদান করলেন নন্দীগ্রাম ২ নং ব্লকের তৃণমূল নেতা তথা বয়াল ১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েত এর প্রধান পবিত্র কর।তাঁর সাথে এই পঞ্চায়েতের উপ প্রধান সহ আরো ৮ জন সদস্য এদিন বিজেপিতে যোগ দান করলেন বলে জানা যাচ্ছে।ফলে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার ২২৩টি গ্রাম পঞ্চায়েতের মধ্যে এই প্রথম কোন পঞ্চায়েত দখল করলো বিজেপি।

উল্লেখ্য বয়াল-১ পঞ্চায়েতের ১০টি আসন এর মধ্যে ২ জন সদস্য বাদে প্রধান ও উপ প্রধান বিশ্বজিৎ ভুঞ্যা সহ তৃনমূলের টিকিটে জেতা ৮ জন সদস্য বিজেপিতে যোগ দান করেছেন।

দলত্যাগীরা ও বিজেপির থেকে জানা গেছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার নন্দীগ্রাম ১ ও ২ নম্বর ব্লকের প্রায় ১৭ টি পঞ্চায়েত এর বহু তৃনমূল নেতৃত্বরাও এদিন এক সাথে বিজেপিতে যোগদান করলেন। কলকাতার হেস্টিংস এ বিজেপির রাজ্য দপ্তরে বিজেপির রাজ্য সভাপতি সাংসদ দিলিপ ঘোষ এর হাত থেকে পতাকা তুলে নেন তাঁরা। তাদের নেতৃত্বে যোগদান প্রায় ৫০০ তৃণমূল কর্মী সমর্থকের।

দল বদলের কারন হিসাবে বয়াল ১ পঞ্চায়েতের প্রধান পবিত্র কর জানিয়েছেন সরকার এখন সরকারের মত কাজ করছে না ।তাঁদের পুরানো দলও সাম্প্রদায়িক শক্তির হাতে চলে গেছে।তাই বাংলার উন্নয়ন ও সম্প্রীতি বজায় রাখতে এবং বিদেশী শক্তির চক্রান্ত ব্যার্থ করতেই তাঁরা এই দল বদলের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।তিনি আরো জানিয়েছেন আগামী দিনে আরো বহু তৃনমূল কর্মী সমর্থক বিজেপিতে যোগদান করবেন।

কলকাতায় বিজেপির সদর দফতরে নন্দীগ্রাম থেকে এক ঝাঁক তৃনমূল নেতৃত্ব ও পঞ্চায়েতের প্রধান – উপ প্রধানের যোগ দানের বিষয়টা তাঁর জানা নেই বলে জানান পূর্ব মেদিনীপুর জেলা তৃনমূলের মুখপাত্র মধুরিমা মন্ডল।খোঁজ নিয়ে তিনি জানাবেন বলে জানিয়েছেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *