Breaking News

নুলিয়াদের তৎপরতায় দিঘায় প্রান বাঁচলো এক যুবক ও নাবালকের

Post Views: website counter

উৎসব মরসুমে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার সৈকত শহরে বেড়াতে এসে দুর্ঘটনার কবলে পড়া পর্যটকদের উদ্ধার করলো নুলিয়ারা।সমুদ্রে স্নান করতে নেমে তলিয়ে যাবার আগে এক যুবক ও এক শিশুকে উদ্ধার করলেন তাঁরা। পরপর দুদিন পূর্ব মেদিনীপুর জেলার সৈকত শহর দুঘায় এই দুর্ঘটনা গুলি ঘটে ।

জানা গেছে মঙ্গলবার দুপুরে নতুন দিঘার হলিডে হোম ঘাটে স্নান করতে নেমে তলিয়ে যায় শাহারুল শেখ নামের এক যুবক।পুলিশ সুত্রে জানা গেছে দুর্ঘটনাগ্রস্ত এই যুবকের বাড়ি দক্ষিণ ২৪ পরগনার ফলতা থানার মূল পঞ্জা এলাকায়। পেশায় দর্জি শাহারুল সোমবার রাতে বাইকে করে বন্ধুদের সাথে দিঘায় বেড়াতে এসেছিল । আর মঙ্গলবার স্নান করতে নেমে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে।

মঙ্গলবার দুপুরে লুলিয়ারা এই যুবককে সমুদ্রের জলে হাবুডুবু খেতে দেখে দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে। সেখান থেকে এই দুর্ঘটনাগ্রস্থ যুবক পর্যটককে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয় দীঘা স্টেট জেনারেল হাসপাতালে।সেখানে সুস্থ হওয়ার পর মঙ্গলবার রাতেই বন্ধু মুস্তাকিন শেখ ইসরাফিল খানের সঙ্গে বাড়ি ফিরে যায় এই যুবক।

অপরদিকে সোমবার সমুদ্রে স্নান করতে নেমে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে ৭ বছরের এক শিশু পুত্র। জানা জানা গেছে হাওড়া থেকে শেখ শাহাবুদ্দিন ও তার স্ত্রী নূরনবীনা বেগম দিঘায় রবিবার বেড়াতে আসেন। এই দম্পতির সাথে তাদের দুই ১৫ ও ১৩ বছরের মেয়ে এবং সাত বছরের ছিল এক শিশু ছিলো।

সোমবার এই ৭ বছরের পুত্রকে স্নানঘাটে বসিয়ে বাকিরা স্নান করার সময় দুর্ঘটনাটি ঘটে।সবার অলক্ষ্যে ৭ বছরের শিশু সমুদ্রের জলে নেমে যায় ।সেই সময় জোয়ার আশায় এই শিশুপুত্রকে অনেকটা দূর টেনে নিয়ে যায়। ঘটনাটি নজরে আসতেই নুলিয়ারা দ্রুত শিশুটিকে উদ্ধার করে।সেখান থেকে দিঘা স্টেট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় এই নাবালককে।সামান্যক্ষন পরে শিশুটি সুস্থ্য হলে তাকে পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয় ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *