Breaking News

ধর্ষন করে যুবতীর মাথা-ধড় আলাদা করে দিলো দুষ্কৃতী

Post Views: website counter

 

প্রদীপ কুমার সিংহ

উত্তরপ্রদেশের হাথরস কান্ডের রেশ কাটতে কাটতে এবার এই রাজ্যে নারী নির্যাতনের এক নৃসংশ ঘটনা সামনে এলো ।এক যুবতীকে ধর্ষনের পরে তার দেহ ও মুন্ডু আলাদা করে দিলো দুষ্কৃতীরা!

সকালে ভোরের আলো ফুটতে না ফুটতেই রাস্তার ধারে এক অপরিচিত মহিলার মূন্ডুহীন দেহ পড়ে থাকতে দেখে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়ায়। নির্জন এলাকায় রাস্তার উপরে এভাবে মুণ্ডুহীন দেহ পড়ে থাকার খবর পেয়ে বহু মানুষ ঘটনাস্থলে ছুটে আসে। জানা গেছে ঘটনাস্থল থেকে সামান্য দূরে খাল থেকে থেকে উদ্ধার এই অপরিচিত যুবতীর কাটা মুন্ডু। শুক্রবার সাতসকালে এই ঘটনা ঘটেছে জয়নগর থানার রাজাপুর-করাবেগ এলাকায়।

ঘটনাটা নজরে আসার পরেই স্থানীয় বাসিন্দারা খবর দেয় জয়নগর থানায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে মৃত দেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তে পাঠায়। যদিও কাটামুন্ডু প্রথমে পায়নি পুলিশ।পরে গ্রামবাসীরা উৎসাহবশত রাস্তার পাশে গোদাবর-ছানাগুড়ি খালে জাল ফেলে খোঁজ চালায়। তল্লাশিতে খাল থেকে উদ্ধার হয় যুবতীর রক্তাক্ত কাটামুন্ডু। পুলিশ দেহটাকে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে। ।

বাসিন্দাদের অভিযোগ,বাইরের কোন জায়গায় যুবতীকে ধর্ষণ করে খুন করে রাতে দেহ এই জায়গায় ফেলে দেওয়া হয়েছে। সহজে যাতে এই যুবতীর পরিচয় জানা না যায়,তার জন্যে এই ভাবে দেহ ও মুন্ডু আলাদা করে ভিন্ন ভিন্ন স্থানে ফেলে দিয়ে গেছে দুষ্কৃতীরা।তবে যুবতীর পরিচয় জানার জন্য জেলার সব থানায়গুলিতে ছবি পাঠানো হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। যুবতীর সালোয়ার কামিজ পরিহিত ছিল। বয়স আনুমানিক ৩০-৩৫। মুন্ডু ও গলার কাছে একাধিক ধারালো অস্ত্রের কোপের চিহ্ন পাওয়া গিয়েছে।

স্থানীয় মানুষেরা ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন।এই ঘটনার দোষীদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে ফাঁসি দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন তাঁরা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *