Breaking News

ধী মহি

Post Views: website counter

 

অশোক নন্দ

পুরুষ তুমি প্রথমত সন্তান কোনো নারী র।
পরে তুমি ব্রাহ্মণ উচ্চবর্ণের। তোমার ধীশক্তি, ক্ষত্রিয় তোমার পেশীবহুল দেহ তোমার মায়ের দান।
ঘন কুয়াশার আড়ালে আঁশটে গন্ধ ছড়িয়ে যে বেয়ে চলে স্রোতোস্বিনীর বুকে ছিপ পানসি,
তিনিও কোন মহাকবির মাতা।
তার স্তন নিঃসৃত যে গাঢ় দুগ্ধফেননিভ অমৃতধারা
তা পরিপুষ্ট করেছে পুরুষ তোমাকে।
তোমার বলিষ্ঠ মাংসল দেহ
নির্মিত ওই নারী র গোপোন গুহায় গুপ্ত গহ্বরে।
সেখানে তিল তিল করে নিজ অস্থি মজ্জা দিয়ে গড়ে তোলে তোমাকে।
হে ব্রাহ্মণ,হে ক্ষত্রিয়,ওহে বেনিয়া তোমাকে।
তোমার পেলব শরীর এই কঠিণ মাটির আঘাত থেকে
রক্ষা করার জন্য মাটিতে বিছিয়ে রাখেন
দেহজ জলের বিছানা।
গুপ্তগহ্বর থেকে তোমার আগমনের পথ
মসৃণ করে রেখেছেন পিচ্ছিল জলীয় উপাদানে।
ওই দেখো তাঁর যন্ত্রণা তোমার আনন্দ হয়ে নেমে আসে
যোনি দ্বার দিয়ে রক্ত অশ্রুতে মিশে।
যে যোনি মুখ প্রতিদিন আহত তোমার অত্যাচারে।
সুশিক্ষিত আমরা, চায়ের পেয়ালায় তুফান তুলি
আর কেঁচোর মতো,কেন্নোর মতো দিন যাপনে
সব ভুলি।
হে বীর পুঙ্গবের দল এ নারী মানবী।
তোমার ঔরষ জাত সন্তানেরা
সারমেয় সম কেন?
তুমি অমৃতের পুত্র।
অঞ্জলী ভরে পান কর অমৃত,
বলো ধী মহি ধীয়ো য়ো নঃ প্রচোদয়াৎ।।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *