Breaking News

ফের খেজুরীতে উদ্ধার কুমিরের বাচ্চা!

Post Views: website counter

পূর্ব মেদিনীপুর জেলার খেজুরিতে ফের মৎস্যজীবিদের জালে উদ্ধার হল একটা বাচ্চা কুমির!

বন দফতর সুত্রে জানা গেছে মৎস্যজীবিরা জাল নিয়ে মাছ ধর যাওয়ার সময় নদীর চরে এই কুমিরটি দেখতে পান ।ভোর ছয়টা-সাড়ে ছয়টা নাগাদ ঘটনাটি ঘটেছে।উদ্ধার হওয়া এই কুমির বাচ্চাটি লম্বায় প্রায় এক ফুট।স্থানীয়দের সুত্রে জানা গিয়েছে বৃহস্পতিবার সকালে এই ঘটনাটি ঘটে।

উল্লেখ্য পূর্ব মেদিনীপুর জেলার খেজুরি- ২ ব্লকের পশ্চিম পাঁচুড়িয়া গ্রামের বাসিন্দারা নদীতে মাছ ধরে জীবিকা নিবারন করেন।সেই কারনেই এই এলাকার বাসিন্দা পেশায় মৎস্যজীবিরা সমুদ্র সংলগ্ন খাঁড়িতে সকালে মাছ ও কাঁকড়া ধরতে গিয়েছিলেন। সেই সময় তাঁরা এই বাচ্চা কুমিরটিকে নদীর চরে ঘুরে বেড়াতে দেখেন।

মৎস্যজীবিদের হাতে ফের কুমির বাচ্চা ধরা পড়ার খবর ছড়িয়ে পড়তে কাতারে কাতারে উৎসাহী মানুষ মানুষ ভীড় জমায় নদীর চরে।এর আগে চলতি মাসের ১২ তারিখে সমুদ্র সংলগ্ন খাঁড়িতে সকালে মাছ ও কাঁকড়া ধরতে গিয়ে খেজুরি নিচকসবা গ্রামের বাসিন্দা মৎস্যজীবী নভেন্দু দাস এর জালে উঠে এসেছিলো কুমির বাচ্চা ।এবার পশ্চিম পাঁচুড়িয়াতে মৎস্যজীবিদের হাতে ধরা পড়লো এই কুমির বাচ্চা ।খবর পেয়ে বন দফতরের আধিকারীকেরা ঘটনাস্থলে ছুটে যায়।

কুমির বাচ্চা পাওয়া গেছে জানতে পেরে ঘটনাস্থলে হাজির হয় বনদপ্তরে অধিকারীরা।স্থানীয় মানুষ ও বন দফতরের মতে খেজুরি তথা কাঁথির সমুদ্র উপকূলে কুমির ধরা পড়ার ঘটনা সম্ভবত এই নিয়ে দ্বিতিয়বার ঘটলো।জানা গেছে মৎস্যজীবিদের জালে ধরা পড়া এই বাচ্চা কুমিরটি বর্তমানে বন দপ্তরের খেজুরির বিট অফিসের তত্ত্বাবধানে রয়েছে।

তবে এই এলাকায় কি ভাবে কুমিরের মত প্রানী পাওয়া যাচ্ছে সেই বিষয়ে স্পষ্ট করে কিছু বলতে পারছেনা বন দফতর।তাঁদের আশংকা আমফান ঝড়ের সময় কিংবা অন্যকোন ভাবে মা কুমির এই এলাকায় চলে আসে ।সেই কুমির বাচ্চা প্রসব করায় এগুলি নজরে আসচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *