Breaking News

কোলাঘাটে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে চাকুরীর টোপ দিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকা প্রতারনা

Post Views: website counter

 

করোনা আবহে মানুষকে প্রতারনার নতুন পদ্ধতি নিয়েছে প্রতারকেরা।এখন কাজ হারিয়ে লক্ষ লক্ষ মানুষ দিশেহারা।সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে চাকুরীর টোপ দিয়ে মানুষের থেকে টাকা তোলার ফাঁদ পেতেছে প্রতারকেরা।আর সেই ফাঁদে পা দিয়ে লক্ষ লক্ষ হারাচ্ছে কর্মপ্রার্থীরা।তেমন এক ঘটনার স্বাক্ষী থাকলো পূর্ব মেদিনীপুর।

অভিযোগ কোলাঘাট নবোদয় পাবলিক স্কুল (মাধ্যমিক) নামে এক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নাম করে চাকরি দেওয়ার টোপ দিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকা প্রতারণার অভিযোগ উঠল । চাঞ্চল্যকর এই অভিযোগ পাওয়ার পরেই ঘটনার তদন্তে নেমেছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার কোলাঘাট ব্লক প্রশাসন।

সম্প্রতি সংবাদমাধ্যমে ফলাও করে বিজ্ঞাপন দিয়ে শিক্ষক ও অশিক্ষক পদে ইচ্ছুক ব্যক্তিদের কাছ থেকে নিজেদের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আবেদনপত্র চেয়ে পাঠায় কোলাঘাট নবোদয় পাবলিক স্কুল কর্তৃপক্ষ।ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে আবেদন জমার ফি হিসাবে ৫০১ টাকা করে চাওয়া হয়।

রাজ্যের এই বহুল প্রচারিত সংবাদপত্রে বিজ্ঞাপন দেখে দুই মেদিনীপুর, হাওড়া, হুগলি-সহ রাজ্য থেকে বহু বেকার যুবক-যুবতী উৎসাহী হয়ে এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে চাকরির জন্যে আবেদন করেন।তবে আবেদনকারীদের অভিযোগ চলতি মাসের ৩০ তারিখ পর্যন্ত আবেদন জমা দেওয়ার তারিখ ধার্য করা হলেও, মঙ্গলবার বিকেলের পর থেকে আচমকাই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইটটি বন্ধ হয়ে গেছে।তাঁদের আরো অভিযোগ অনলাইনে তাঁদের থেকে টাকা নিলেও কোন রিসিভ কপি দেওয়া হয়নি।আর তাতেই প্রতারিত হওয়ার আশংকায় পড়েছেন আবেদনকারীরা।

তাঁরা বলেন করোনা পরিস্থিতিতে এমনিতেই হাজার হাজার বেকার যুবক-যুবতী।এবার তদের থেকে চাকুরীর প্রলোভন দেখিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকা লুটে নিলো প্রতারকেরা।এমন অভিযোগ পেয়ে বেশ কিছুটা নড়েচড়ে বসেছে কোলাঘাট ব্লক প্রশাসন।

এ বিষয়ে কোলাঘাটের বিডিও মদন মণ্ডল বলেন, “বিষয়টি আমাদের নজরে এসেছে। প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে পুরোটাই ভুয়ো। পুলিশকে তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।”

বেকার কিংবা কর্মপ্রার্থীরা প্রশাসনকে এই বিষয়ে আরো সক্রিয় নজরদারি চালানোর দাবি তুলেছেন।তাঁদের আশংকা ফের এমন ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা প্রবল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *