Breaking News

১৩ মাসে জমজ সহ ৮ সন্তানের জন্ম দিলেন লীলাদেবী !

Post Views: website counter

একটা নয়, দু’টো নয়, আট-আটটি সন্তানের জন্ম দিয়েছেন তিনি। তা-ও আবার মাত্র ১৮ মাসের মধ্যে। অথচ নিজেই সে কথা জানতেন না ৬৫ বছরের লীলাদেবী। বরং সরকারি নথি দেখে তা আবিষ্কার করলেন তিনি। আর তাতেই হইচই শুরু হয়েছে  বিহার জুড়ে।

প্রসঙ্গত প্রসূতি ও সদ্যোজাতের দেখভালের জন্য মিলছে সরকারি সাহায্য। আর সেই অর্থ আত্মসাতের জন্যই এই ষড়যন্ত্রের ফাঁদ পাতা হয়েছিল। বিষয়টি সামনে আসতেই নড়েচড়ে বসেছে প্রশাসন। বিহারের স্বাস্থ্যমন্ত্রী মঙ্গল পাণ্ডে জানান, ন্যাশনাল মেটারনিটি বেনিফিট প্রকল্পের কেলেঙ্কারিতে চার সদস্যের একটি কমিটি তৈরি করা হয়েছে। ওই কমিটি তদন্ত করবে। দোষীদের রেয়াত করা হবে না।উল্লেখ্য সন্তান প্রসবের আগে ও পরে কয়েক মাস মায়েদের ১৪০০ টাকা করে দেওয়া হয়। আশা কর্মীরা পান ৬০০ টাকা করে।

বিহারের সরকারি রেকর্ড বলছে, মুজফ্ফরপুরের লীলা দেবী ১৩ মাসের মধ্যে আট সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। যদিও, পাঁচ নবজাতকের মধ্যে তিনজনকে বাঁচানো যায়নি।  এর পিছনে লুকিয়ে রয়েছে এক বিরাট কেলেঙ্কারি। জানা গিয়েছে, ন্যাশনাল রুরাল হেলথ মিশন বা রাষ্ট্রীয় গ্রাম স্বাস্থ্য যোজনার আওতায় বরাদ্দ টাকা তুলতে ৬৫ বছরের বৃদ্ধাকে ১৩ মাসের মধ্যে আটবার গর্ভবতী দেখানো হয়েছে। প্রতিটি ডেলিভারির পর সরকারি বরাদ্দ ১,৪০০ টাকা করে তোলা হয়েছে। কিন্তু, লীলাদেবী নিজে সেই টাকার এক আনাও পাননি।

কেউ বা কারা টাকা তুলে নিয়েছেন, তা ঘুণাক্ষরেও টের পাননি তিনি। বিষয়টি নজরে আসার পরেই লীলাদেবীর পরিবার তা ব্যাংকে জানায়।

লীলাদেবী একা নন, ৬৬ বছর বয়সী শান্তিদেবী, ৫৯ বছরের সাবিনা খাতুন-সহ রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অনেক মহিলাই একই অভিযোগ করেছেন। এর পিছনে বড় ধরনের দুর্নীতি চক্র কাজ করছে বলে মনে করা হচ্ছে।

গোটা ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেন মুজফফরপুরের মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক শৈলেন্দ্রপ্রসাদ সিংহ। তিনি বলেন, ‘‘জেলাশাসকের সঙ্গে দেখা করে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছি। উনিও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। বিষয়টি খতিয়ে দেখতে একটি তদন্ত কমিটি গড়ার নির্দেশ দিয়েছেন আমাকে।’’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *