Breaking News

কোভিড পরীক্ষা ও কন্টাক্ট ট্রেসিং এ আরও জোর দিতে বললেন প্রধানমন্ত্রী

Post Views: website counter

 

টেস্টের সংখ্যা বাড়িয়ে করোনা ভাইরাসের (Coronavirus) সংক্রমিত রোগীদের স্পর্শে আশা ব্যক্তিদের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে চিহ্নিত করে তাদের পরীক্ষার বন্দোবস্ত করতে হবে। বললেন দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi) ।

কোভিড পরীক্ষা ও কন্টাক্ট ট্রেসিং বেশি সংখ্যায় করতে পারলেই এই যুদ্ধে জয়ী হবে ভারত এমনটা পরামর্শ দিয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের প্রশংসা করলেন প্রধানমন্ত্রী। এদিন তিনি বলেন, ‘‘এই মুহূর্তে যত সংখ্যক মানুষ করোনায় আক্রান্ত, তাঁদের ৮০ শতাংশই ১০টি রাজ্যে রয়েছেন।

করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এই ১০ রাজ্যের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই মুহূর্তে দেশে করোনা রোগীর সংখ্যা ৬ লক্ষের বেশি। তার মধ্যে অধিকাংশই এই ১০ রাজ্যের মানুষ। তাই এই ১০ রাজ্যে যদি করোনাকে হারানো যায়, তাহলেই করোনার বিরুদ্ধে লড়াই সফল হবে গোটা দেশের।’’ মোদি আরও বলেন, ‘‘বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কোনও ব্যক্তির শরীরে সংক্রমণ ধরা পড়ার ৭২ ঘণ্টার মধ্যে তাঁর সংস্পর্শে আসা সকলের করোনা পরীক্ষার ব্যবস্থা করতে হবে। তাতে সংক্রমণ অনেকটাই নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। তাই ৭২ ঘণ্টার মধ্যে সংক্রমিতের সংস্পর্শে আসা সকলকে চিহ্নিত করে পরীক্ষার করতে হবে। আলাদা করতে হবে কনটেনমেন্ট জোনগুলিকে।’’

দেশের যে ১০টি রাজ্যে এই মুহূর্তে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের প্রকোপ সবচেয়ে বেশি, এদিন ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সেইসব মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করেন বসেন প্রধানমন্ত্রী। বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ছাড়াও ছিলেন অন্ধ্রপ্রদেশ, কর্নাটক, তামিলনাড়ু, মহারাষ্ট্র, পঞ্জাব, বিহার, গুজরাত, তেলঙ্গানা এবং উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীরা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “মৃত্যুর হার লাগাতার কমতে থাকার পাশাপাশি, সুস্থতার হার প্রতিদিন বেড়ে চলেছে। এতেই বোঝা যায় সঠিক পদক্ষেপই করেছি আমরা। ঠিক পথেই এগোচ্ছি।’’ তিনি আরও বলেন, ‘‘কোভিডের কারণে উদ্ভুত মহামারির বিরুদ্ধে প্রত্যেক রাজ্যই লড়াই করছে। করোনা নিয়ন্ত্রণে প্রত্যেকের ভূমিকাই গুরুত্বপূর্ণ। সকলকে এ ভাবেই এক জোটে লড়াই চালিয়ে যেতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *